ময়ূরের খামার করে আয় অর্ধকোটি টাকা

শখের বসে ময়ূরের খামার করে প্রায় অর্ধকোটি টাকার মালিক কুমিল্লার হোমনার শাহ আলী। ২০১৯ সালে দুই ময়ূর দিয়ে খামার শুরু করলেও এখন তার খামারে ময়ূর আছে ৯০ টির মত। যার বাজার মূল্য ২৫ লাখ টাকা।

 

 

জানা যায়, শাহ আলীর ছোটবেলা থেকে বাসায় পাখি লালন পালন করতেন। আর শখের বসে ১ লাখ ৬৫ হাজার টাকা দিয়ে ১ জোড়া ময়ূর কিনে আনেন। পরবর্তীতে দুইটি টিনশেড ঘর তৈরী করেন এবং ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা দিয়ে আরও ৫ টা ময়ূর ক্রয় করেন। ৭ টা ময়ূর থেকে আজ খামারে ৯০ টি মূয়র রয়েছে তার খামারে।

 

 

তিনি আরও বলেন, খামার করতে এই পর্যন্ত খরচ হয়েছে ১০ লাখ টাকা। ২৫ লাখ টাকার ময়ূর রয়েছে তার খামারে। কিছু দিন আগে ময়ূর বিক্রি করেছেন ২২ লাখ টাকার।

 

 

যারা ময়ূরের খামার করতে আগ্রহী তাদের উদ্দেশ্যে শাহ আলী বলেন, ময়ূর পালন সৌখিন জিনিস। তাছাড়া ময়ূর লালন-পালন করা সহজ। কেউ যদি খামার করার ইচ্ছা থাকে তাহলে আগে একজোড়া ময়ূর নিয়ে লালন-পালন করে তার পর খামারে উদ্যোগ নেওয়া উচিৎ।

 

 

উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা এ কে এম বাহারুল ইসলাম, শাহ আলী একজন সফল উদ্যেক্তা। তিনি ময়ূরের খামারের পাশাপাশি গরু, তিতির পাখি, কোয়েল পাখি, ভেড়া পালন করছেন। উপজেলা প্রাণিসম্পদ কার্যালয় থেকে নিয়মিত পরামর্শ, খামার পরিদর্শন করছি।

 

 

কুমিল্লা জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. সৈয়দ মো. নজরুল ইসলাম বলেন, আমাদের জেলায় এটি প্রথম ময়ূরের খামার। শাহ আলীর মতো ময়ূরের খামার করতে অনেকেই আগ্রহ প্রকাশ করছে।

 

তথ্যসূত্রঃ আধুনিক কৃষি খামার