আপনার আদরের কন্যা সন্তানকে এই সাধারন কথা গুলো একদমই বলবেন না

একটি মেয়ে বড় হয় অনেক স্বপ্ন চোখে নিয়ে। কখনো কখনো তা বাস্তবে রুপ নেয় কখনো তা হারিয়ে যায় নিমিষেই। তবে পরিবারের একটুখানি সহযোগিতা পারে একটি মেয়েকে অনেখানি স্বাবলম্বী করতে, তার মনের জোরকে বৃদ্ধি করতে।

একজন মেয়েকে প্রায়শই নানা সমস্যার সম্মুক্ষিন হতে হয়। তাই পরিবার থেকে তাকে সামনে এগিয়ে যেতে বলা উচিত। সাধরণত এমন কিছু কথা প্রচলিত রয়েছে যা কন্যাশিশুকে প্রাযই বলা হয় কিন্তু এ কথাগুলো ভুলেও কন্যাশিশুকে বলা উচিত নয়।

তুমি খুব ছোট

কিছু কিছু কাজ মেয়ে সন্তান ছেলে সন্তানদের তুলনায় ভালো করতে পারে। তাছাড়া তাকে অনেক কাজে উৎসাহী করা হয় না সে ছোট বলে। মানুষ চেষ্টা করে বার বার ব্যর্থ হয়ে সফলতার মুখ দেখে। তাই তাকে ছোট থেকে উৎসাহ দেয়া উচিত। তাকে ছোট বলে তার নিজের কাছে অবহেলিত করবেন না।

কম আশা করা

মানুষ ছোট হলেও তার স্বপ্ন হওয়া উচিত অনেক বড়। কারণ আপনি বড় স্বপ্ন দেখলেই কেবল বড় হতে পারবেন। তাই পরিবারের কন্যা শিশুটিকে ছোট আশা করতে মানা করুন।

তাকে সাহায্য করুন বড় কিছুর স্বপ্ন দেখতে। তাকে উৎসাহিত করুন।

এই কাজটি ছেলেদের

কোনো কাজ ছেলে বা মেয়ের নয়। সবাই সব কাজ করতে পারে। কাজ করতে চাই মেধা। তাই সে যদি ছোট থেকে কোনো কাজ করতে চায় তবে তাকে বাঁধা দেবেন না। তাকে বলবেন না যে এই কাজটি তোমার নয়। নয়তো সে স্বপ্ন দেখার আগে অন্য কিছু নিয়ে ভাবতে শুরু করবে।

ব্যর্থ সময় নষ্ট

আমরা প্রায়ই বলি কেনো ব্যর্থ সময় নষ্ট করছো এই কাজ করে। এতে কী লাভ? সব কাজেই যে একজন মানুষ শুধু লাভবান হবে তা না। যে কোনো কাজ থেকে শেখার অনেক কিছু আছে। তাই তাকে বার বার চেষ্টা করতে দিন। সে কাজ করুক তাহলেই তো শিখতে পারবে।

এই কাজের যোগ্য না

কোন কাজে কে কখন পারদর্শী হয়ে উঠে তা কেউ বলতে পারে না। তাই যদি আপনার কন্যা সন্তানটি কোনো কাজে বিশেষভাবে পারদর্শী হয় তবে তাকে অনুপ্রাণিত করুন। কাজ ছোট বলে তাকে আগেই থামিয়ে দেবেন না।