পাতলা ভ্রূ ঘন সুন্দর করার ঘরোয়া ৬টি টিপস শিখে নিন

অনেকের ভ্রূ খুবই পাতলা কিংবা ভ্রূ ঘন হচ্ছে না, ভ্রূ খুশকিতে ভরা – তাদের চিন্তা থাকে ভ্রূ কিভাবে ঠিক করা যায় তা নিয়ে। ভ্রূ প্লাক করেও সব সময় ঘন ও পছন্দসই ভ্রূ পাওয়া যায় না। অর্থাৎ ভ্রূ নিয়ে প্রায় সবাই কম-বেশি মনোকষ্টে থাকেন।

অথচ ঘরোয়া কিছু টিপস জানলে বাড়িতে বসেই পেতে পারেন ঘন, কালো, সুন্দর ভ্রূ। মাসে মাসে পার্লারে যাবার খরচটাও কমলো। তাই আসুন জেনে নেই সুন্দর ভ্রূ পাবার কিছু সহজ ও ঘরোয়া টিপস।

১. ভ্রূ সব সময় পরিষ্কার রাখুনঃ

ভ্রূ সুন্দর রাখতে চাইলে এর যত্ন নেয়াটাও দরকার। স্ক্যাল্পের মত ভ্রূ এর গোড়ায়ও মরা কোষ, খুশকি, ধুলো, ময়লা এসব জমা হয়। তাই মুখ ধোয়ার সময় বা স্ক্রাবিংয়ের সময় ভ্রূ এর অংশটুকুও স্ক্রাব করা প্রয়োজন। এতে ভ্রূ পরিষ্কার হয়ে যাবে। মেকআপ তোলার সময় চোখের মেকআপের পাশাপাশি ভ্রূ এর মেকআপও পরিষ্কার করে ফেলুন। নয়ত এটি ভ্রূ এর ক্ষতি করবে।

২. ভ্রূ ম্যাসাজ করুনঃ

আমাদের মাঝে অনেকেই আছেন যাদের ভ্রূ খুবই পাতলা। এটা নিয়ে অনেকে হীনমন্যতায়ও ভোগেন। ঘন, কালো ও সুন্দর ভ্রূ পেতে নিয়মিত ভ্রূ ম্যাসাজ করুন। রাতে ঘুমোতে যাবার আগে ক্যাস্টর অয়েল হাতের আঙ্গুলে নিয়ে পাঁচ থেকে দশ মিনিট ম্যাসাজ করে ঘুমোতে যান। সকালে ফেস ক্লিন করার পর ভ্রূ তে আইব্রো অয়েল ম্যাসাজ করুন। ম্যাসাজের ফলে ভ্রূ এর ত্বকের রক্ত সঞ্চালন বাড়ে এবং ভ্রূ সুন্দর হয়।

৩. ভ্রূ মজবুত করুনঃ

চুল পরার মত করে ভ্রূ ও কিন্তু পরে যায় বা ঝরে যায়। এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে আপনাকে খেতে হবে ভিটামিন-এ, ভিটামিন-বি, মিনারেলস, সালফার, পটাশিয়াম, জিংক ও ক্যালসিয়াম যুক্ত পুষ্টিকর খাবার এবং পান করতে হবে প্রচুর পরিমানে পানি ও তরল জুস। সেই সাথে ভ্রূ তে বাদাম তেল কিংবা পেঁয়াজের রস মাখতে পারেন। এই তেলে থাকা অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট ও অন্যান্য উপাদান ভ্রূ এর গোড়া শক্ত ও মজবুত করবে এবং ভ্রূ এর ঝরে পরা রোধ করবে। আর পেঁয়াজের রসে থাকা ভিটামিন, সালফার ও মিনারেলস নতুন ভ্রূ গজাতে সাহায্য করবে।

৪. ভ্রূ আঁচড়ে নিনঃ

জ্বী ঠিকই পড়ছেন। ভ্রূ সুন্দর রাখতে চাইলে ভ্রূ আঁচড়ে নিন। ঘামে ভিজে ভ্রূ এর ত্বকে মৃত কোষ, বাইরের ময়লা-ধুলোবালি জমে। কখনো কখনো ভ্রূ এর ত্বকে ব্রণও উঠে। এসব থেকে মুক্তি পেতে নিয়মিত ভ্রূ আঁচড়ে নিন। নরম টুথব্রাশ পানিতে ভিজিয়ে সকাল ও বিকালে আঁচড়ে ফেলুন। এতে করে ভ্রূ এর ত্বকে বেশি ময়লাও জমতে পারবে না আর ভ্রূ থাকবে সুন্দর ও স্বাস্থ্যোজ্জ্বল।

৫. দুধ ও লেবুর মিশ্রণঃ

আমাদের মাথার স্ক্যাল্পে খুশকি ও ফাঙ্গাস থাকলে তা খুব সহজেই আমাদের চোখের ভ্রূ তে ছড়িয়ে পরতে পারে। ফলাফল ভ্রূ কমে যায়, এমনকি ভ্রূ তে খুশকির বা ফাঙ্গাসের আক্রমণ ঘটতে পারে। দীর্ঘদিন এমন অবস্থা থাকলে এ থেকে সৃষ্টি হতে পারে চর্মরোগও। তাই ভ্রূ কে খুশকি ও ফাঙ্গাসের হাত থেকে রক্ষা করা জরুরি। তাই সপ্তাহে দুই দিন দুধ ও লেবুর মিশ্রণ ভ্রূ তে লাগিয়ে নিন। আধ ঘন্টা পর ধুয়ে ফেলুন। ব্যাস!

৬. মেহেদী ও ভিটামিন ই ক্যাপসুলঃ

ভ্রূ কালো করতে মেহেদী কিন্তু খুব উপকারী। সাথে ভিটামিন ই ক্যাপসুল ভ্রূ এর গ্রোথ বাড়িয়ে দিতে সাহায্য করে। মেহেদী গুড়া বা মেহেদী বাটার সাথে ভিটামিন ই ক্যাপসুল মিশিয়ে নিয়ে ভ্রূ তে লাগিয়ে রাখুন। পনের মিনিট রেখে পরিষ্কার করে আবার লাগান। এভাবে তিন থেকে পাঁচবার লাগান। এতে ভ্রূ তে গাঢ় ও সুন্দর রং আসবে।

তো আর দেরি কেন? পার্লারে গিয়ে অযথা টাকা নষ্ট না করে এখন ঘরে বসেই যত্ন নিন ভ্রূ এর, পেয়ে যান গাঢ়, ঘন ও সুন্দর ভ্রূ। আর অবশ্যই আমাদের জানাতে ভুলবেন না যেন।