ডায়াবিটিস, উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে চান? রোজ সকালে গ্রিন কফি খান

ঘুম থেকে উঠে কফির কাপে চুমুক দিয়ে দিন শুরু করেন? এ বার একটু অভ্যাসে বদল আনুন। কফিই খান। তবে কালো বা দুধ দেওয়া কফি নয়। সকালে উঠে রোজ খান গ্রিন কফি। এই কফি শরীরের কোনও ক্ষতি তো করেই না। বরং নিয়মিত এই কফি খেলে নিয়ন্ত্রণে থাকবে কিছু রোগও। না-সেঁকা কফির বীজ থেকে তৈরি হওয়া এই কফিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট। এই কফি নিয়মিত খেলে শরীরের কী কী উপকার হয়, জেনে নিন।

কেন খাবেন গ্রিন কফি?

১) সকালবেলা উঠে দুধ দেওয়া কফি বা চায়ের বদলে গ্রিন কফি খেলে ওজন কমবে দ্রুত। বেশ কয়েকটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে, গ্রিন কফির বীজ দ্রুত ওজন কমাতে পারে।

২) গ্রিন কফিতে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট থাকায়, তা শরীরকে নানা রোগ থেকে বাঁচায়। এমনকি, অকালবার্ধক্য হওয়ার আশঙ্কাও কমে যায়। ত্বক ও চুলের নানা সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে রোজ গ্রিন কফি খান।

৩) ডায়াবিটিসের সমস্যায় গ্রিন কফি খুবই উপকারি। কারণ এটি খেলে রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকে। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে, নিয়মিত এই কফি খেলে টাইপ টু ডায়াবিটিস হওয়ার আশঙ্কা কমে।

৪) উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা থাকলে চোখ বুজে গ্রিন কফি খান। এতে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকবে। এ ছাড়া হৃদ্‌রোগ ও কিডনির সমস্যা প্রতিহত করতে পারে এই কফি।

৫) গ্রিন কফির বীজে রয়েছে ক্রোনোলজিক্যাল অ্যাসিড, যা শরীরের বিপাকীয় হার ঠিক রাখে। এর ফলে শারীরিক শক্তি বাড়ে।