বন্ধুর প্রেমে পড়লে যেভাবে তা জানাবেন

জীবনের অমূল্য একটি সম্পদ হচ্ছে ভালো একজন বন্ধু। যে সুখে দুঃখে সবসময় পাশে থাকে। ভরসা দেয়, সাহস যোগায়। বন্ধু-বান্ধব জীবনের প্রতিটি মুহূর্ত আনন্দে পরিপূর্ণ করে তোলে। শুধু তাই নয়, বিপদে পড়লে বন্ধুরাই পেছনে না থেকে সবার আগে ঝাঁপিয়ে পড়ে।

তবে কিছু কিছু বন্ধুত্বের সম্পর্কে অনেক দূর পর্যন্ত গড়িয়ে যায়। অর্থাৎ শুরুটা বন্ধুত্ব দিয়ে হলেও, পরবর্তীতে সেই সম্পর্ক গড়িয়ে যায় প্রেম এবং বিয়েতে। এমনটা হওয়ার কারণ হলো, সব প্রেমেই বন্ধুত্ব থাকে, কিন্তু সব বন্ধুত্ব মানে প্রেম নয়।

তবে এক্ষেত্রেও কিছু সমস্যাও হয়ে থাকে। যখন আপনি আপনার কাছের কোনো বন্ধুর প্রেমে পড়ে যান, তখন মুশকিল হয়ে যায়। কারণ সুন্দর এই সম্পর্ক আরো বেশি সুন্দর হবে নাকি এখানে সবকিছু ভেঙে যাবে, আপনি কিছুই বুঝতে পারেন না।

এমন দ্বিধায় ভুগে অনেকেই আর মনের কথাটি প্রকাশ করার সাহস পান না। হতেও তো পারে, আপনার বন্ধুটি আসলে আপনার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়াতে চাইছেন। তাই মনের কথা মনে না চেপে বলে দেওয়াই ভালো।

মনোবিদদের মতে, প্রিয় বন্ধুর প্রেমে পড়া মোটেও অস্বাভাবিক কিছু নয়। এর বড় কারণও কিন্তু বন্ধুত্ব। দুজন দুজনকে খুব ভালো করে বুঝতে পারেন বলেই প্রেমে পড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। গল্প, আড্ডা, খুনসুটি, আনন্দ, ভালো-মন্দে পাশে থাকা- এসব মিলিয়েই একটা সময় মনে হতে পারে যে তাকে ছাড়া থাকা সম্ভব নয়। আর এই অনুভূতির নামই তো প্রেম! যদি আপনিও আপনার বন্ধুর প্রেমে পড়ে থাকেন, তবে তাকে জানাতে পারেন এভাবে-

তাকে আভাস দিন

প্রিয় বন্ধুকে হুট করে প্রেমে পড়ার কথা বলা যায় না। কী বললে কী হবে এই ভাবতে ভাবতেই কেটে যায় সময়। কিন্তু আপনি যদি সত্যিই তার প্রেমে পড়ে থাকেস, তবে না বলা পর্যন্ত আপনি আর আপনাতে থাকবেন না। তবে হুট করে বলার দরকার নেই। একটু ভেবেচিন্তেই পদক্ষেপ নিন। তাকে হালকা আভাস দিতে পারেন। সবার থেকে বেশি তার দিকে খেয়াল রাখতে পারেন। হয়তো তিনিও এটাই চান, কিন্তু বলতে পারছেন না। তাই ধীরে ধীরে তাকে অনুভব করতে দিন যে আপনি তার প্রেমে পড়েছেন।

বলেই দিন!

বন্ধুরা মিলে যেসব জায়গায় বেশি যাওয়া হয়, তার কোনো একটি জায়গা বেছে নিন। হতে পারে কোনো দর্শনীয় স্থান বা রেস্তোরা। তার পছন্দের জায়গা নির্বাচন করুন। সেখানে গিয়ে তাকে মনের সব কথা খুলে বলুন। প্রথমেই প্রোপোজ করে বসবেন না যেন! আপনার মনের কী অবস্থা, কেমন অনুভূতি হচ্ছে তা খোলাখুলি বলুন। এরপর তাকে বলুন যে এই অনুভূতিগুলো হচ্ছে তার জন্য। আপনার এখন করণীয় কী, সেই পরামর্শও জানতে চান তার কাছে। আপনাকে হ্যাঁ বলার জন্য তাকে কোনোভাবেই জোর করবেন না।

চিঠি কিংবা উপহার

মানছি যে যুগ অনেক এগিয়েছে। তাই বলে দামী দামী গ্যাজেটের ভিড়ে একটুও ম্লান হয়নি চিঠির আবেদন। আজও মানুষ প্রিয়জনের কাছ থেকে একটি আবেগপূর্ণ চিঠির প্রত্যাশা করে। তাই প্রিয় বন্ধুকে প্রেমের কথা জানাতে সাহায্য নিতে পারেন চিঠির। মনের কথা লিখে ফেলুন মন খুলে।

এরপর সেটি পোস্ট করে দিন তার ঠিকানায়। সঙ্গে পাঠাতে পারেন তার পছন্দের কোনো উপহারও। ফিরতি চিঠিতে তিনি যেন মনের কথাটি জানান, সেকথাও লিখতে ভুলবেন না। আপনার অপেক্ষার প্রহর শেষ হবে, আশা করি।

মাঝরাতে হঠাৎ ফোন

দিনের সময়টা নানা কাজে ব্যস্ত থেকে আমাদের মন এমনিতেই অনেকটা খিটমিটে হয়ে থাকে। সেই অনুপাতে রাতের সময়ে মন বেশি প্রশান্ত থাকে। তাই বন্ধুকে প্রেমের কথা জানানোর জন্য রাত হতে পারে উপযুক্ত সময়। রাতে আলাদা সময় করে তার খোঁজ-খবর নিন। একটা সময় এটিই অভ্যাস হয়ে যাবে। এরপর আপনি মেসেজ না দিলেও দেখবেন তিনি মেসেজ দিয়ে আপনার খোঁজ নিচ্ছেন।

একটি আলাদা টান তৈরি হবে। একটা সময় আপনি বুঝতে পারবেন, আসলে তিনি কী চান, আপনাকে গ্রহণ করার জন্য প্রস্তুত কি না। যদি ইতিবাচক মনে হয়, তবে হঠাৎ একদিন মাঝরাতে ফোন করে বলে দিন- ‌‘ভালোবাসি’।