চিংড়ির কোফতা কারি

ঈদের সুস্বাদু সব খাবার যেন স্বাস্থ্যকরও হয় সেদিকে নজর রাখতে হবে। এমন সব খাবার তৈরি করুন যা সহজেই রান্না করা যায়। চিংড়ি দিয়ে খাবার তৈরি করা বেশ সহজ। কারণ এটি সেদ্ধ হতে খুবই কম সময় নেয়। আজ চলুন জেনে নেয়া যাক চিংড়ির কোফতা কারি তৈরির রেসিপি-

উপকরণ:

চিংড়ি কিমা করা- ১ কাপ

বেসন- ১/২ কাপ

কাজুবাদাম কুচি- ১/২ কাপ

কাঁচামরিচ কুচি- ১ চা চামচ

হলুদ- ১/২ চা চামচ

লাল মরিচের গুঁড়া- ১ চা চামচ

পেঁয়াজ কুচি- ১ চা চামচ

পেঁয়াজ বাটা- ৩ টেবিল চামচ

আদা বাটা- ২ চা চামচ

রসুন বাটা- ২ চা চামচ

ডিম- ১টি

টেলে রাখা জিরা গুঁড়া- ২ চা চামচ

টমেটো কুঁচি- ১/২ কাপ

লবণ- স্বাদমতো

ধনিয়াপাতা কুঁচি- ১ কাপ

পেঁয়াজের বেরেস্তা- সাজানোর জন্য

তেল- ৪ টেবিল চামচ।

প্রণালি:

প্রথমে চিংড়ি কিমার সাথে ধনিয়াপাতা কুচি, বেসন, কাজুবাদাম কুচি, কাঁচামরিচ কুচি, পেঁয়াজ কুচি ও পরিমাণমতো লবণ দিয়ে মিশ্রণ তৈরি করুন। এবার একটি ডিম ফাটিয়ে নিয়ে মিশ্রণে যোগ করতে হবে যাতে কোফতার শেপ দিতে সুবিধা হয়। ডিম এখানে বাইন্ডিং-এর কাজ করবে। এবার এই মিশ্রণটি থেকে গোল গোল বল বানিয়ে নিন।

বড় একটি প্যানে তেল মিডিয়াম আঁচে গরম করে নিয়ে কোফতাগুলোকে ভেজে নিন, যতক্ষণ না বাদামী রং ধারণ করে। কোফতা বানানো হয়ে গেলো। এবার গ্রেভির জন্য অন্য প্যানে পরিমাণমতো তেল নিন। কোফতা ভাজার তেল ব্যবহার করলে ফ্লেবার খুব ভালো আসবে। তেল গরম হলে তাতে পেঁয়াজ বাটা, আদা বাটা ও রসুন বাটা দিয়ে কষিয়ে নিন। মসলা থেকে তেল ছেড়ে আসলে টমেটো কুচি, লাল মরিচের গুঁড়া, হলুদ গুঁড়া ও লবণ দিয়ে দিন। একটু পানি দিয়ে মসলাগুলো ভালোভাবে কষিয়ে নিতে হবে।

এবার গ্রেভির মধ্যে আগে থেকে ভেজে রাখা কোফতাগুলো দিয়ে টেলে রাখা জিরা গুঁড়া ছড়িয়ে দিন। তারপর ঢাকনা দিয়ে ঢেকে অল্প আঁচে ৫ মিনিট দমে রাখুন। ঝোল ঘন হয়ে আসলে উপরে কাঁচামরিচ, পেঁয়াজের বেরেস্তা ও ধনিয়াপাতা কুচি দিয়ে দিন। তৈরি হয়ে গেল চিংড়ির কোফতা কারি। পোলাও, ফ্রায়েড রাইস ও নানের সাথে খেতে দারুণ লাগবে।