ভারি মেকআপ করার আগে মুখের ত্বকের যত্নে সেরা ৫টি ঘরোয়া ফেস প্যাক

বাজারের দামী দামী সব বিউটি প্রোডাক্টের চেয়ে এই প্রাকৃতিক উপাদানগুলোই ত্বকের জন্য বেশি ভালো। কেমিক্যাল না থাকায় এরা ত্বকের কোনো উপকার করতে না পারলেও অপকার করে না কখনোই। এই ফেস প্যাকগুলো মুখের খসখসে ভাব আর চামড়া ওঠা দূর তো করেই, সেই সাথে মেকআপটাও ত্বকে খুব সুন্দরভাবে সেট হবে। তাহলে চলুন আজ জেনে নেই ঘরোয়া পাঁচটি ফেস প্যাকের কথা যা আপনার ত্বকে মেকআপ সেট করতে সাহায্য করবে।

১. ফলের ফেস প্যাকঃ

যা যা লাগবেঃ

একটি পাকা কলা অথবা পাকা পেঁপে

কমলার খোসা

গ্লিসারিন

মধু

টক দই

লেবুর রস

ফেসপ্যাক তৈরির পদ্ধতিঃ

কমলার খোসা বেটে নিন অথবা কড়া রোদে শুকিয়ে গুড়ো করে নিন। পাকা কলা অথবা পাকা পেঁপে চটকে মিহি করে নিন। দুটো ফল একসাথেও নিতে পারেন বা যে কোনো একটি ফলও ব্যবহার করতে পারেন। এর সাথে কমলার খোসা, কয়েক ফোঁটা গ্লিসারিন, সামান্য মধু, টক দই ও অর্ধেকটা লেবুর রস ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। এবার গলা ও মুখে এই মিশ্রণটি লাগিয়ে নিন। আধ ঘন্টা অপেক্ষা করে সামান্য উষ্ণ জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

২. সবজির ফেস প্যাকঃ

যা যা লাগবেঃ

দুইটি টমেটো

শসা

মধু

অলিভ অয়েল

বেসন

লেবুর রস

ফেস প্যাক তৈরির পদ্ধতিঃ

টমেটো ও শসা ব্লেন্ড করে ছেঁকে রস আলাদা করে নিন। এই রসের সাথে বেসন মিশিয়ে পেস্টের মত মিশ্রণ তৈরি করুন। এতে মধু, কয়েক ফোঁটা অলিভ অয়েল ও সামান্য লেবুর রস মিশিয়ে নিন। উষ্ণ পানি দিয়ে মুখ পরিষ্কার করে এই প্যাকটি মুখে লাগিয়ে শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। এরপর নরম সুতি কাপড় হালকা গরম পানিতে ভিজিয়ে মুখ মুছে পরিষ্কার করে ফেলুন।

৩. ডিম ও দুধের ফেস প্যাকঃ

যা যা লাগবেঃ

ডিমের সাদা অংশ

কাঁচা দুধ

কাঁচা হলুদ বাটা

মুলতানি মাটি

ফেসপ্যাক তৈরির পদ্ধতিঃ

ডিমের সাদা অংশ ফেটিয়ে নিন। এর সাথে কাঁচা দুধ মিশিয়ে নিন। এরপর কাঁচা হলুদ বাটা ও মুলতানি মাটি মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। ত্বকের শুষ্কতা ও রুক্ষতা দূর করতে এই ফেসপ্যাকটা খুব সাহায্য করবে। পেস্ট তৈরি হয়ে গেলে দশ মিনিট রেখে দিন। এরপর মুখমন্ডল ও গলায় লাগিয়ে রাখুন। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন। ব্যাস।

৪. ডিমের খোসার ফেস প্যাকঃ

যা যা লাগবেঃ

একটি ডিমের খোসা

চালের গুড়া

গোলাপ জল

কাঁচা দুধ

মধু

লাল চিনি

ফেস প্যাক তৈরির পদ্ধতিঃ

প্রথমেই ডিমের খোসা বেটে মিহি করে নিন। এবার চালের গুড়া, গোলাপ জল, কাঁচা দুধ, মধু, সামান্য লাল চিনি সবই বেটে নেয়া ডিমের খোসার সাথে ভালো করে মিশিয়ে ফ্রিজের নরমালে বিশ মিনিটের মত রেখে দিন। বিশ মিনিট পর ফ্রিজ থেকে বের করে তুলার সাহায্যে মিশ্রণটি ত্বকে লাগিয়ে নিন। পঁচিশ থেকে ত্রিশ মিনিট পর ভেজা সুতি কাপড় দিয়ে মুখ মুছে পরিষ্কার করে নিন।

৫. চায়ের ফেস প্যাকঃ

যা যা লাগবেঃ

জ্বাল দেওয়া চা পাতা

অ্যালোভেরা জেল

মধু

লেবুর রস

চন্দন গুড়ো

ফেস প্যাক তৈরির পদ্ধতিঃ

তিন কাপ পানিতে চা পাতা দিয়ে জ্বাল করে আধ কাপ পানি করে নিন। এবার চন্দনের গুড়ো, অ্যালোভেরা জেল, মধু, লেবুর রস ও জ্বাল দেয়া চা পাতাসহ পানি পরিমানমত মিশিয়ে নিন। আধ কাপ পানির পুরোটাই মিশ্রণ তৈরিতে প্রয়োজন হবে না, বাকি পানিটুকু আলাদা করে রেখে দিন। মিশ্রণ তৈরি হয়ে গেলে সেটা পুরো মুখে ও গলায় লাগিয়ে নিন। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন। এরপর মুখটা মুছে নিন। আগে রেখে দেয়া জ্বাল করা চা পাতার পানিটা হাতে নিয়ে মুখে ম্যাসাজ করুন।