নতুন মায়েদের জন্য সহজে ও কম সময়ে বাচ্চাদের সুজি রান্নার টিপস

গরুর দু’ধও খাচ্ছে না (গ’রুর দু’ধ ১ বসরের বাচ্চার জন্য প্রযোজ্য) ? তাহলে আপনি আর কি খাওয়াতে পারেন এটা নিয়ে খুব টেনশন এ আছেন,

তাইতো? আপনি নিজেকে দিয়েই দেখেন প্রতিদিন কিন্তু আপনার একই রকমের খাবার খেতে ইচ্ছা করবে না।

আর প্রতিদিন একই রকমের খাবার খেলে সেই খাবারের প্রতি ছোট-বড় সবারই অরুচি আসে। আপনি ইচ্ছা করলে বু’কের দু’ধের পাশাপাশি আপনের বাচ্চাকে প্রতি সপ্তাহে ২-৩ দিন সুজি রান্না করে খাওয়াতে পারেন।

উপকরণ

গ’রুর দুধ, (গ’রু’র দু’ধ ১ বসরের বাচ্চার জন্য প্রযোজ্য)

চিনি,

সুজি ও

লবন।

প্রণালী

প্রথমে পাত্রে পরিমান মত গরুর দু’ধ (গরুর দু’ধ ১ বসরের বাচ্চার জন্য প্রযোজ্য) দিয়ে তার মধ্যে চিনি যত কম দেয়া সম্ভব, সামান্য লবন ও সুজি দিয়ে চুলার আঁচ দিতে থাকুন।

দুধ ২-৩ বার বলক উঠার পর চুলার আঁচ কমিয়ে নামিয়ে ফেলুন। এবার ঠান্ডা করে বাচ্চাকে অন্তত সপ্তাহে ২-৩ দিন ২ বার করে খাওয়ান।

দেখবেন আপনার বাচ্চার রুচির পরিবর্তন এসেছে এবং সে খাবার খেতে গিয়ে আর কান্নাকাটি করবে না। সুজি রান্না বাচ্চাদের জন্য অনেক পুষ্টিকর একটা খাবার।

(গরুর দু’ধ ১ বসরের বাচ্চার জন্য প্রযোজ্য , প্রয়োজনে বাচ্চাদের বয়স অনুপাতে বাজারের বেবি মি’ল্ক খাওয়াতে পারেন, তবে অবশ্যই গুনগত মান সম্পর্কে যাচাই বাছাই করে নিবেন)