এই করোনাকালে মাস্ক পড়লে মাথা ব্যথা করে? জানুন করণীয়

করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে মাস্ক পরার বিকল্প নেই। যদিও অনেকে করোনার দুই ডোজ গ্রহণ করেছেন তবুও মাস্ক না পড়ে চলাফেরা করা উচিত না।

বিশেষজ্ঞরা এ বিষয়ে বারবার পরামর্শ দিচ্ছেন, তবুও অনেকেই স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না। বর্তমানে করোনা সংক্রমণ কমলেও মাস্ক পরা, হাত ধোয়া ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার বিকল্প নেই।

অনেকেই ভাবছেন টিকা তো নিয়েই নিয়েছি, এখন আর মাস্ক পড়ে কি লাভ! তবে কখনো এই ভুল করবেন না অবশ্যই মাস্ক পড়তে হবে।

যাদের সর্দি, কাশি, হাঁপানি, এলার্জি ও ত্বকে ফুসকুড়ি থাকে তাদের জন্য মাস্ক ব্যবহার করা আরো কঠিন।

তবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশনা অনুসারে, সবাইকে নিজ ও অন্যের নিরাপত্তার জন্য জনস্বাস্থ্য ব্যবস্থা মেনে চলতে হবে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, দীর্ঘ সময় ধরে টাইট মাস্ক পড়লে টেম্পোরোম্যান্ডিবুলার জয়েন্টে ব্যথা হতে পারে। মাস্ক পড়লে যেহেতু চোয়াল নড়াতে বেশ সমস্যা হয়।

তাই মুখের পেশী ও টিস্যু সমূহ বাধাপ্রাপ্ত হয়। ফলে চোয়াল প্রভাবিত হয়ে স্নায়ুতে ব্যথার সংকেত পাঠায়। যা মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

মাস্ক পরলে মাথাব্যথা প্রতিরোধে করণীয়ঃ

– টাইট মাস্ক পড়বেন না। এতে কানে চাপ পড়ে। যা মাথাব্যথার কারণ হতে পারে।

– মাস্ক পড়ার সময় চোয়াল ও দাঁতের অবস্থানের দিকে মনোযোগ দিন। মানসিক চাপ ও দুশ্চিন্তা থাকলে চোয়ালের পেশি শক্ত হয়ে যায়। যা মাথাব্যথার কারণ হতে পারে।

– মাস্ক পরে খারাপ ভঙ্গিতে থাকবেন না। এতে পেশী টান পড়বে। যা মাথাব্যথার কারণ হতে পারে।

– মাস্ক পড়ার পর চোয়াল শিথিল রাখার চেষ্টা করুন। প্রয়োজনে হালকা ভাবে মুখ খুলে রাখুন।