জেনে নিন অল্প বয়সে চুল পাকার সাধারন কিছু কারন ও সমাধান

আমাদের প্রত্যেকেরই বয়স হবে। জীবনের আপন নিয়মেই একটা সময়ের পর শুরু হবে বার্ধক্য। আর সেই বার্ধক্যের চিহ্ন হিসেবেই চুল পাকবে। আপনার সাধের চুলের রং হবে সাদা। তবে অনেকের ক্ষেত্রে বয়সের আগেই চুল পাকতে (Early White Hair) শুরু করে। এমনকী বয়স ২০ ছোঁয়ার আগেও হতে পারে সমস্যা। এই মানুষগুলি এমন অকালপক্ব চুল (Premature Graying) দেখে বেশ নিরাশায় ভোগেন। অনেকে তো আবার চলে যান অবসাদে।

কোন বয়সে চুল পাকা স্বাভাবিক?

সবকিছুরই একটা বয়স রয়েছে। তেমনই চুল পাকারও একটি নির্দিষ্ট বয়স রয়েছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, চুল পাকার আদর্শ বয়স হল ৩০। এই সময় থেকে মাথায় দুই-একটা চুল পাকলে তেমন কোনও সমস্যা নেই। এর আগে পাকলেই অকালপক্ব।

চুল কম বয়সে পাকার কারণ

এর নেপথ্যে নানা কারণ থাকতে পারে-

ভিটামিন বি ১২ কম থাকা- চুলের স্বাস্থ্য ভালো রাখার অন্যতম উপায় হল ভিটামিন বি ১২। তবে এই ভিটামিনের অভাব ঘটলে চুল পাকতে পারে।

ধূমপান- ধূমপানের ক্ষতি নিয়ে যত কম কথা বলা যায় ততই ভালো। সেক্ষেত্রে ধূমপান করলে চুলের গোড়ার রক্তনালী শুকিয়ে যেতে পারে। ফলে চুল শুকিয়ে যায়।

দুশ্চিন্তা- দুশ্চিন্তার কারণে যে সকল সমস্যা দেখা দিতে পারে তার মধ্যে অন্যতম হল অল্প বয়সে চুল পেকে যাওয়া। তাই বিশেষজ্ঞরা যতটা সম্ভব দুশ্চিন্তা থেকে দূরে থাকতে বলেন।

জিনগত- অনেকের পরিবারে এই সমস্যা থাকে। বংশ পরম্পরায় এই সমস্যা হতে থাকে।

সমস্যা দূর করতে কী করবেন?

বুঝলাম সমস্যা রয়েছে। তবে তাই বলে অবসাদে যাওয়ার কোনও কারণই নেই। বেশকিছু উপায় রয়েছে যা মেনে চলেল খুব সহজেই এই সমস্যা থেকে দূরে থাকা যাবে।
এই বিষয়গুলি মেনে চলুন-

ভিটামিন বি ১২ সাপ্লিমেন্ট চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে খেতে পারেন।

রোজ এক্সারসাইজ করুন। এক্সারসাইজ করলে শরীর সুস্থ থাকে। আপনার শরীর থাকবে ভালো।

ধূমপান শরীরের পক্ষে ভীষণই ক্ষতিকর। তাই ধূমপান আজই ছাড়ুন।

রোজ যোগ করুন। বিশেষত, প্রাণায়াম করতে পারলে সবথেকে ভালো হয়।

দুশ্চিন্তা দূর করুন। এই হল সব সমস্যার মূল।

মনে রাখবেন, চুলের পুষ্টি শুরু হয় মুখ থেকে। অর্থাৎ ভালো খাবার খেতে হবে। এখানে ভালো খাবার বলতে দোকান থেকে কেনা খাবারের কথা বলা হয়নি। বরং আপনাকে খেতে হবে মরশুমি তাজা ফল শাকসব্জি। তবেই শরীর থাকবে ভালো। সঙ্গে চুলের হালও ফিরবে।

চুলে লাগাতে পারেন আমলকী। আমলকীতে উপস্থিত অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও অন্যান্য জরুরি পুষ্টিকর উপাদান চুল ভালো রাখেন। তবে আমলকীর পেস্ট মাখার ৩০ মিনিট পর করতে হবে শ্যাম্পু। দেখবেন চুল ভালো আছে।

নারকেল তেলে সামান্য কারি পাতা ফেলে মাথায় মাখতে পারেন। রাতে মেখে পরের দিন শ্যাম্পু করে নিন। চুল ভালো থাকবে।