কিডনির সমস্যা থেকে বাচতে আজই ত্যাগ করুন এই ৫ বদঅভ্যাস

কিডনি (Kidney) আমাদের শরীরের খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি অঙ্গ (Organ)। এই অঙ্গটি শরীর থেকে খারাপ সব পদার্থ বাইরে বের করে দেয়। এক্ষেত্রে খারাপ পদার্থ বের করে দেওয়ার জন্য কিডনি তৈরি করে মূত্র (Urine)। প্রস্রাবের মাধ্যমেই বেরিয়ে যায় এই খারাপ উপাদান। ফলে আমরা ভালো থাকি। তবে শুধু খারাপ পদার্থ বের করে দেওয়াই নয়, এছাড়া শরীরে সোডিয়াম-পটাশিয়ামের ভারসাম্য রক্ষার কাজটিও করে এই অঙ্গ। এছাড়া এই অঙ্গটি শরীরে তরলের মাত্রা ঠিক রাখতে সাহায্য করে। তাহলে বুঝতেই পারছেন এই একটি অঙ্গ ঠিক কতকগুলি কাজ করে থাকে! তাই বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই অঙ্গের খেয়াল রাখা আমাদের জন্য খুবই জরুরি।

তবে আমাদের জীবনের কিছু খারাপ অভ্যাস (Bad Habits) এই অঙ্গের উপর সরাসরি প্রভাব ফেলে। তখন অঙ্গটির সমস্যা দেখা যায়। তবে মনে রাখবেন, এই অঙ্গটির একবার ক্ষতি হলে শরীরে নানা ধরনের সমস্যা দেখা দিতে পারে। তখন চিকিৎসা করে রোগ নিয়ন্ত্রণ করা গেলেও কিডনি কিন্তু আগের অবস্থায় ফিরবে না। তাই প্রথম থেকেই সতর্ক থাকুন। আর কিডনির সমস্যা (Kidney Problems) দেখা দেওয়ার আগেই এই বদভ্যাস ছাড়ুন।

প্রস্রাব চেপে রাখা- অনেক মানুষ দীর্ঘসময় প্রস্রাব চেপে রাখেন। তবে এই অভ্যাস কিডনির ক্ষতি করতে পারে বলেই জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। এক্ষেত্রে দীর্ঘসময় ধরে ইউরিন বন্ধ করার ফলে হতে পারে ইউরিনারি ট্র্যাক্ট ইনফেকশন (UTI), ব্লাডার ইনফেকশন, এমনকী কিডনিতে পর্যন্ত হতে পারে ইনফেকশন (Infection)। তাই এই অভ্যাস থাকলে আজই ছাড়ুন।

বেশি প্রোটিন খাওয়া- অনেকে বেশি মাত্রায় প্রোটিন (Protein) খেতে পছন্দ করেন। তাঁদের খাবারে থাকে বেশি মাত্রায় ডিম, মাছ, মাংস, সোয়াবিনের মতো প্রোটিন যুক্ত খাবার। তবে এই প্রোটিন বেশি পরিমাণে খেলে আদতে হতে পারে শরীরেরই ক্ষতি। এমনকী কিডনিও হতে পারে ক্ষতিগ্রস্ত (Kidney Damage)। সেক্ষেত্রে এই খাদ্যাভ্যাস ছাড়ুন।

নুন- আগেই বলেছি, কিডনি শরীরে সোডিয়াম-পটাশিয়ামের ভারসাম্য তৈরি করে। তবে নুন (Salt) বেশি খেলে শরীরে সোডিয়াম বেশি পরিমাণে পৌঁছয়। আর সোডিয়াম শরীরে জল ধরে রাখে। ফলে ক্ষতি হয় কিডনির। এক্ষেত্রে শরীরে জল ও সোডিয়ামের ভারসাম্য ঠিক থাকে না।

কফি- কফিতে (Coffee) থাকে ক্যাফিন। আর এই ক্যাফিন শরীরে বেশি মাত্রায় পৌঁছে গেলে হতে পারে কিডনির ক্ষতি। তাই বেশি কফি পান ছাড়ুন।

কম জলপান করা- জলপান করলে কিডনি ভালো থাকে। তবে আমাদের মধ্যে বহু মানুষ ভালোমতো জলপান করতে চান না। সেক্ষেত্রে দেখা দেয় সমস্যা। এরফল ভোগ করে কিডনি। তাই দিনে অন্তত ২ লিটার জলপান করতেই হবে। তবে খুব বেশি জলপান করবেন না। বেশি জলপান করলে শরীরে সমস্যা হতে পারে।