এই শীতে পরোটা খেয়েও কমতে পারে ওজন, দেখুন বিস্তারিত

শীতকাল মানেই আনুষ্ঠানিকভাবে কম্বলের নিচে লুকিয়ে থেকে উষ্ণ কফিতে চুমুক দেওয়ার ঋতু! বিছানা থেকে উঠে কাজ করা যতটা কঠিন, ব্যায়ামের মাধ্যমে কাজ করার বা নিজেকে ফিট রাখার অনুপ্রেরণা খুঁজে পাওয়া আরও অনেক বেশি কঠিন কাজ। শুধু তাই নয়, শীতকাল আমাদের ওজন বাড়াতে এবং মেটাবলিজম ধীরগতির করে দেওয়ার জন্য কুখ্যাত। লুচি, পরোটা এবং মিষ্টির মতো ক্যালোরিসমৃদ্ধ এবং চর্বিযুক্ত খাবারের লোভও এই সময় বৃদ্ধি পায়, যার ফলে ওজনও তরতর করে বেড়ে যায়। কিন্তু বিশেষ কয়েকটা পরোটা আছে যা ওজন কমানোর জন্য সহায়ক এবং এগুলো সঠিকভাবে খেলে অতিরিক্ত মেদ কমে যায়।

পেঁয়াজের পরোটা:

পেঁয়াজ ত্বকের জন্য দারুণ কারণ এতে প্রচুর পরিমাণে কোলাজেন রয়েছে এবং এতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন C-ও উপস্থিত রয়েছে যা শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা তৈরি করতে সাহায্য করে। শুধু ওজন কমাতেই নয়, পেঁয়াজের পরোটা সামগ্রিক সুস্থতার ভাণ্ডারও।

পালং শাকের পরোটা:

পুষ্টিগুণে ভরপুর প্রাতরাশের জন্য, পালং শাকের পরোটা একেবারে উপযুক্ত। ভিটামিন B, E এবং K সহ পটাসিয়াম, ক্যালসিয়াম এবং ম্যাগনেসিয়ামের মতো মাইক্রোনিউট্রিয়েন্টে পরিপূর্ণ, পালং শাক একটি স্বাস্থ্যকর সবজি। এতে কম ক্যালোরি রয়েছে এবং এটি প্রয়োজনীয় পুষ্টি সরবরাহ করে। এর উচ্চ গ্লাইসেমিক সূচক দীর্ঘ সময়ের জন্য পেট ভর্তি রাখে এবং ওজন কমাতে সহায়তা করে।

মেথির পরোটা:

মেথি ভালো মানের ফাইবারে পরিপূর্ণ যা হজম প্রক্রিয়াকে ত্বরান্বিত করে, ওজন কমাতে সাহায্য করে এবং এটি ত্বক ও চুলের জন্য উপকারী। এছাড়াও ফাইবারের অন্যান্য উপকারিতা রয়েছে যেমন রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখা। এতে অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট এবং অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি উপাদান রয়েছে যা শরীরকে যে কোনও অপ্রয়োজনীয় ক্ষতিকারক উপাদান থেকে দূরে রাখে।

স্বাস্থ্যকর পরোটা তৈরি করার কয়েকটি টিপস:

পরোটা রান্না করার সময় খুব বেশি ঘি বা তেল ব্যবহার করা যাবে না। পরোটার সঙ্গে দই খাওয়া যায় কারণ এতে প্রোবায়োটিক রয়েছে যা বিপাক প্রক্রিয়ায় সাহায্য করে। দই একটি চমৎকার চর্বি বার্নার এবং হজম প্রক্রিয়ায় সাহায্য করে।

জোয়ার, বাজরা এবং রাগি রয়েছে এমন মাল্টিগ্রেন ময়দা দিয়ে পরোটা বানানো কারণ এই শস্যগুলি ফাইবার সমৃদ্ধ যা দীর্ঘ সময়ের জন্য পেট ভর্তি রাখে।

হোল হুইট বা গমের আটা একটি অস্বাস্থ্যকর উপাদান তাই এটি ব্যবহার না করার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।