অল্প বয়সেই চুলে পাক? খাবারের পরিবর্তনেই ফিরিয়ে আনুন চুলের জেল্লা

অল্প বয়সেই চুলে পাক ধরছে, তাই তরিঘড়ি পার্লারের দিকে পা বাড়ানো। অথচ বাড়িতে খাদ্য তালিকায় নিত্য দিন বিশেষ কিছু খাবার রাখলেই অনেকটা বদলে যাবে চুলের ধরন থেকে গঠন।

মাথায় এক ঢাল কালো চুলের (Black Hair Grow) স্বপ্ন অনেকেই দেখেন। কিন্তু তা পূরণ হয়ে ওঠে না অনেকেরই। ফলে হতাশার (Depression) জন্ম নেয় মনে। অল্প বয়সেই চুলে পাক ধরছে, তাই তরিঘড়ি পার্লারের দিকে পা বাড়ানো। অথচ বাড়িতে খাদ্য তালিকায় (Diet) নিত্য দিন বিশেষ কিছু খাবার রাখলেই অনেকটা বদলে যাবে চুলের ধরন থেকে গঠন। বাইরের খাবার খাওয়া মানেই চুল থেকে ত্বক, ক্ষতির সন্মুখীন হতে হয় অনেকখানি। তাই বাড়ির খাবারের দিকেই নজর দিয়ে এবার চুলের জেল্লা ফিরিয়ে আনুন।

জেনে নিন কোন খাবারে চুলের কালোভাব বজায় থাকবেঃ

১. শাক সবজিঃ শাক সবজিতে প্রচুর পরিমাণে ফোলিক অ্যাসিড থাকে। যার ফলে তা চুলকে দীর্ঘদিন কালো রাখতে সাহায্য করে থাকে।

২. ছোলাঃ সকালবেলা খালি পেতে ছোলা খান। ছোলা স্বাস্থ্যে পক্ষে উপকারী। রক্ত ভালো করতে সাহায্য করে. এতে ভিটামিন বি ১২-এর পরিমাণও বেশি থাকে।

৩. বাদামঃ বাদাম থেকে চুল ভালো থাকে। তাই প্রতিদিন না হলেও সপ্তাহে অন্ততপক্ষে চারদিন নিয়ম করে বাদাম খান।

৪. মুরগীর মাংসের স্ট্রুঃ মুরগীর মাংসতেও প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি ১২ থাকে। এতে চুলের রঙ বজায় থাকে। এবং চুল ভালো হয়।

৫. মেটেঃ মেটে খেলে তা চুলকে পাকার হাত থেকে রক্ষা করতে সাহায্য করে থাকে। বিশেষ করে এতে ভিটামিন বি ১২-এর পরিমাণ বেশি মাত্রায় থাকায় তা সব থেকে বেশি কার্যকরী হয়।

এবার আসা যাক চুলের জট প্রসঙ্গে। জানুন কী কী উপায় চুলের জট ছাড়ানো সম্ভবঃ

১) চুলের আগা থেকে মাঝে মধ্যেই ছেঁটে ফেলা প্রয়োজন। এতে চুল ঝড়ার সম্ভাবনা কম থাকে। ভাহা চুল থেকেই জটের সমস্যা দেখা দেয়।

২) ভেজা চুলে চিরুনি নয়, আঙুল দিয়েই চুল ঠিক করে নিন। তা খানিকটা শুকিয়ে যাওয়ার পর চিরুনি দিয়ে চুল আঁচড়ে নিন।

৩) মাথায় তেল লাগান মাঝে মধ্যে। এতে চুলের শুষ্কতা কমে যাবে। এর ফলে চুল কম ভাঙবে, এবং জটের সমস্যা মিটে যাবে।

৪) শ্যাম্পুর পর কন্ডিশনার লাগিয়ে নিন। এর ফলে চুল তেলা এ মসৃণ হয়ে যায়। এবং তা আঁচড়ানোর সময় জট পাকে কম।

৫) চুল বেংধেই স্নান করুন। এতে জট পড়ার সম্ভাবনা অনেকাংশে কমে যায়। চুল বেশি খোলা রাখলে তাতে জট পড়ে বেশি। সেক্ষেত্রে সিরাম ব্যবহার করতে পারেন।