জিমে গিয়ে ওয়ার্কআউট নয়, ঘরের কাজেও কমে ওজন, দেখুন বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ

বর্তমানে বেশির ভাগ মহিলাই ঘরের বাইরে বেরিয়ে কাজ করেন। এবং দিনের শেষে বাড়ি ফিরে সংসারের কাজ করার আর এনার্জি থাকে না। স্বাভাবিকভাবেই তারা নির্ভরশীল হয়ে পড়েন ‘হাউজ হেল্পার’দের উপর।

কিন্তু বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন যে, বাড়ির বা সংসারের দৈনন্দিন নানা কাজ করলেও ক্যালোরি বার্ন হয়। ওজন থাকে নিয়ন্ত্রণে। এমনটাই জানা গিয়েছে সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যেমর এক প্রতিবেদনে। ছবি: শাটারস্টক

ঘর মোছা— ঘর মোছা মানে প্রায় হামাগুড়ি দেওয়া। এই পোজের ফলে পেটে চাপ পড়ে। হাঁটু এবং পায়ের মাসেলেও টান পড়ে। ফলে পেটের মেদ বাড়ে না। ২০ মিনিট এমন ভাবে ঘর মুছলে ১২০ ক্যালোরি পর্যন্ত বার্ন হয়। যদিও, বর্তমানে এমন সব জিনিস বাজারে উপলব্ধ যা দিয়ে দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়েও ঘর মোছা যায়। ছবি: শাটারস্টক

জামাকাপড় ধোয়া— এখন প্রায় প্রতি ঘরেই ওয়াসিং মেশিন রয়েছে। জামাকাপড় ধুতে খুবই সুবিধা হয় এতে। কিন্তু, নিজের হাতে কাপড় ধুলে প্রায় ১৩০ ক্যালোরি বার্ন হয় বলে জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। ছবি: শাটারস্টক

বাসন ধোয়া— সামান্য এই কাজেও বার্ন হয় ক্যালোরি। জানা যাচ্ছে, এক ঘণ্টার এই কাজে ১২৫ ক্যালোরি বার্ন হয়। ছবি: শাটারস্টক

রান্না— নিজের খাবার নিজে রান্না করলে প্রবণতা থাকে অল্প তেল-মশলা ব্যাবহারের। ফলে ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকে। তা ছাড়া, বেশির ভাগ মানুষ রান্না করার সময় দাঁড়িয়ে থাকে। এ ভাবে প্রায় ১০০ ক্যালোরি বার্ন হয়। ছবি: শাটারস্টক

ডাস্টিং— চেষ্টা করুন প্রতি দিন সকালে বা বিকেলে ডাস্টিং করার। এর ফলে প্রায় ১২৫ ক্যালোরি বার্ন হয়। ছবি: শাটারস্টক

আটা মাখা— অনেকে তো এই কাজ করতে পছন্দই করে না। কিন্তু, জানা গিয়েছে, প্রতি দিন আটা বা ময়দা মাখলে হাতের পেশি ভাল থাকে। এবং বার্ন হয় ৫০ ক্যালোরি।

ছবি: শাটারস্টক