এই ১০টি খাবার ব্রণ মুক্ত উজ্জ্বল ত্বকের জন্য উপকারি

মুখে গোটা বেরনো বা ব্রণ হওয়াটা খুবই সাধারণ একটা সমস্যা। কিন্তু যখন এই সমস্যা হয়, তখন জীবন অতিষ্ঠ হয়ে ওঠে। বয়ঃসন্ধির সময় তো বটেই নানা বয়সেই এই সমস্যা হতে পারে।

শরীর সুস্থ সবল রাখতে পুষ্টিকর খাদ্যাভ্যাসের কোনো বিকল্প নেই। সুস্বাস্থ্যের আভা প্রকাশ পায় ত্বকে। এ প্রতিবেদন থেকে ব্রণ মুক্ত উজ্জ্বল ত্বকের জন্য উপকারি কয়েকটি খাবার সম্পর্কে জানানো হল।

১. পানি

ত্বক ভালো রাখতে বেশি করে পানি পান করার বিকল্প নেই। প্রতিদিন অন্তত দেড় থেকে দুই লিটার পানি বা পানিযুক্ত খাদ্য খাওয়া উচিত। পানি ত্বকের ব্রণ দূর করার পাশাপাশি শরীরে চিনি জমতে দেয় না। শরীর থেকে বিষাক্ত উপাদান ঘামের মাধ্যমে বের করে দেয় পানি। পর্যাপ্ত পানি পেলে ত্বকের কোষে পানি পৌঁছায় এবং ত্বক সজীব দেখায়।

২. কুমড়ার বীজ

প্রতিদিনের খাবার তালিকায় কুমড়ার বীজ যোগ করা হলে তা ত্বক ভালো রাখতে সহায়তা করে। কুমড়ার বীজ ভিটামিন ই এবং জিংক সমৃদ্ধ। কেবল ব্রণই দূর করে না বরং ব্রণের কারণে হওয়া লালচেভাব, ব্যথা ও ফোলাভাব এবং দাগ দূর করতে সাহায্য করে।

৩. লাল আঙুর

অ্যান্টি অক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ যা উন্মুক্ত রেডিকেলের বিরুদ্ধে কাজ করে ও দ্রুত বয়সের ছাপ পড়া থেকে রক্ষা করে। এর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ব্রণ ও র‍্যাশের কারণে হওয়া ত্বকের প্রদাহ কমায়। তাছাড়া লাল আঙুরের রস মুখে সরাসরি মাস্ক হিসেবে ব্যবহার করা হলে তা ত্বক পরিষ্কার ও উজ্জ্বল হতে সহায়তা করে।

৪. কমলা

কমলা-সহ সব ধরনের টক ফল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে এবং মৌসুমি অসুখ থেকে রক্ষা করতে সহায়তা করে। একই সঙ্গে এটা ত্বক ভালো রাখতেও ভূমিকা রাখে। কমলাতে আছে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট যা ব্রণ ও র‍্যাশের কারণে হওয়া ফোলা ও লালচেভাব কমায়। কমলার খোসা অথবা রস ত্বকে নিয়মিত ব্যবহার করলে ত্বকের কাঙ্ক্ষিত উজ্জ্বলতা পাওয়া যায়।

৫. বাদাম

স্বাস্থ্য ভালো রাখতে বাদাম সহায়তা করে। আর স্বাস্থ্যের প্রতিফলন ঘটে ত্বকে। কাঠবাদাম ও আখরোট ওমেগা-থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড ও ভিটামিন ই সমৃদ্ধ। যা ত্বকের স্থিতিস্থাপকতা বাড়াতে এবং তারুণ্য ধরে রাখতে সাহায্য করে।

৬. চর্বিযুক্ত মাছ

ওমেগা-থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড সমৃদ্ধ তৈলাক্ত মাছ ত্বকের গঠন সুন্দর ও মসৃণ রাখতে সাহায্য করে। আর কয়েকদিনের মাঝেই আনে চকচকে ভাব। ওমেগা-থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড সমৃদ্ধ খাবার কেবল ত্বকে উজ্জ্বলভাব-ই আনে না, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বাড়ায়।

৭. পত্র বহুল সবজি

আঁশ বহুল শাক সবজি ত্বকের জন্য উপকারী। এতে আছে প্রচুর পুষ্টি উপাদান যেমন- ফোলায়েট, লৌহ, ক্যালশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, আঁশ, ভিটামিন যা সার্বিকভাবে শরীর সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। খাবারে সবুজ শাক যোগ করলে তা ত্বকের ব্রণ কমাতেও সহায়তা করে।

৮. দই

সুস্থ ত্বক সুস্থ শরীরের লক্ষণ। দই ‘ফার্মেন্টেড’ এবং উপকারী প্রোবায়োটিক সমৃদ্ধ। যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এবং ত্বক সুন্দর ও নিখুঁত রাখতে সাহায্য করে।

৯. ভিটামিন-সি যুক্ত ফল

ভিটামিন-সি যুক্ত ফলফলাদি ত্বকের সজীবতার জন্য জরুরি। নিয়মিত ফলমূল খেলে ত্বক ভালো থাকে। পেয়ারা, আনারস, পেঁপে, নানা রকম বেরি জাতীয় ফল ইত্যাদি ত্বককে ভালো রাখে এবং সহজে বয়সের ছাপ পড়তে দেয় না।

১০. করলা

করলায় রয়েছে ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম এবং ম্যাঙ্গানিজ যা স্বাস্থ্যের পাশাপাশি ত্বকের জন্যও উপকারী। করলা ব্রণ দূর করার পাশাপাশি ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতেও সাহায্য করে। তাছাড়া করলা কোলাজেন গঠনেও সহায়ক।