একটি মাত্র ঘরোয়া উপাদানেই দূর হবে খুশকি

শীত আসতেই চুল হয়ে পড়ে রুক্ষ। বেড়ে যায় খুশকির সমস্যা। নানা ধরনের তেল বা শ্যাম্পু ব্যবহারে খুশকি দূর হয় না। নারী-পুরুষ সবাই এই সময় খুশকির সমস্যায় ভোগেন।

তবে এবার থেকে খুশকির সমস্যা সমাধানে আর অর্থ খরচ না করে বরং রান্নাঘরের এক উপাদানে ভরসা রাখতে পারেন। বলছি তেজপাতার কথা। খাবারের সুগন্ধ বাড়াতে এই পাতার জুড়ি মেলা ভার।

এটি ঔষধিপাতা ও বটে। প্রাচীন গ্রিকে ঐতিহ্যগত ঔষধ তৈরি করতে তেজপাতা ব্যাপকভাবে ব্যবহার করা হতো। তেজপাতা দিয়ে চুলের যত্ন নেওয়া যায়। খুশকি ছাড়াও চুলের যেকোন সমস্যা খুব দ্রুত দূর করে তেজপাতা।

কিভাবে ব্যবহার করবেন তেজপাতা?

এ জন্য কয়েকটি তেজ পাতা পানিতে ফুটিয়ে ঠাণ্ডা করে নিন। নিয়মিত এই পানি দিয়ে মাথা ধুতে থাকুন। এছাড়াও তেজ পাতার গুড়া করে এর সঙ্গে টকদই মিশিয়ে হেয়ার প্যাক তৈরি করে নিতে পারেন।

প্রতিদিন গোসলের আগে এই প্যাক অন্তত ১০ মিনিটের জন্য ব্যবহার করুন। তারপর শ্যাম্পু করুন। দেখবেন খুব দ্রুত খুশকি সমস্যার সমাধান হবে।

তেজপাতা ব্যবহারে মাথার ত্বকের বিভিন্ন কারণে ছত্রাক ও ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস হয়। তেজপাতায় থাকা এন্টিফাঙ্গাল বৈশিষ্ট্য এই সমস্যার সহজ এর মোকাবেলা করতে পারে। গবেষণায় দেখা গেছে, তেজপাতা চুলের বৃদ্ধি ও বিভিন্ন সমস্যার সমাধান করে। চুলের ফলিকল গুলোকে আরো শক্তিশালী করে তেজপাতা। চাইলে তেজ পাতার তেল ও ব্যবহার করতে পারেন চুলে।