মেয়েদের পিঠের ব্যথা নিয়ন্ত্রণে ৭ পরামর্শ জেনে নিন

কেউ কেউ দিনের প্রায় পুরোটা সময়ই অফিসে বসে কাজ করেন। একটানা দীর্ঘ সময় ভুল দেহভঙ্গির কারণে ঘাড় বা পিঠে ব্যথা হতে পারে। তাই অফিসে বসার ক্ষেত্রে কিছু বিষয় খেয়াল রাখুন-

১. চেয়ার-টেবিলের উচ্চতা এমন হতে হবে, যেন বসে আরাম হয়। ঘাড় বাঁকা বা নিচু করে দীর্ঘ সময় কাজ করা ঠিক নয়। প্রয়োজনে নিজের উচ্চতা অনুযায়ী উঁচু চেয়ার অথবা নিচু টেবিল বেছে নিন।

২. চেয়ার-টেবিল বদলানো সম্ভব না হলে টেবিলে রিডিং বোর্ড অথবা উঁচু কোনো বোর্ড বা বই রেখে সেটির ওপর অফিসের কাগজ বা ফাইল রেখে কাজ করা যেতে পারে।

৩. গদিওয়ালা চেয়ারে বসে কাজ করার সময় মেরুদণ্ড বাঁকা হয়ে থাকতে পারে, বিশেষ করে গদি পুরোনো হয়ে গেলে এমন সমস্যা বেশি হয়। কাঠ বা প্লাস্টিকের তৈরি চেয়ার শরীরের জন্য ভালো।

৪. গাড়ির সিটে বসলে যেমন ঘাড়ের পেছনের অংশে ভারসাম্য রাখা যায়, অফিসের চেয়ারেও তেমন ব্যবস্থা থাকলে ভালো।

৫. চেয়ারের যে অংশে পিঠ রাখা হয়, সেখানে লাম্বার রোল (ছোট, খানিকটা শক্ত, চোঙাকৃতির একটি জিনিস) বেঁধে নিতে পারেন। আবার বালিশ বা কুশনও ব্যবহার করা যায়।

৬. বসে কাজ করার সময় মাঝেমধ্যে পা রাখার জন্য টেবিলের নিচে কাঠের তক্তা লাগানো যায় বা টুল বা পিঁড়ির মতো কিছু রাখা যায়। বিশেষ করে দীর্ঘক্ষণ বসে থাকলে যাঁদের পা ফুলে যায়, তাঁরা এ পদ্ধতিতে উপকার পাবেন।

৭. কাজের ফাঁকে মাঝেমধ্যে পা দুটি টান টান করে রাখুন। এ অবস্থায় দুই পায়ের পাতা ভেতরের দিকে ও বাইরের দিকে টান টান করুন কয়েকবার। অফিসের ভেতরই নিয়মিত উঠে খানিকটা হাঁটাচলা করে নিন।