জেনে নিন শিশুর ঘুমের সমস্যায় অভিভাবকদের করণীয়

বাচ্চা সুস্বাস্থ্য বজায় রাখতে পুষ্টিকর খাদ্যের পাশাপাশি পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুম‌ও অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। এমন কিছু খাবার আছে যা বাচ্চার পুষ্টির পাশাপাশি তাকে ভালভাবে ঘুমাতে সহায়তা করে।

বাচ্চাদের খাদ্য তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করতে পারেন-

দুধ: এক গ্লাস গরম দুধ ভালো ঘুম হওয়ার সবচেয়ে কার্যকর উপায়। দুধের ট্রিপটোফ্যান থাকে যা সেরোটোনিন এবং মেলাটোনিন উৎপাদনের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয় একটি অ্যামিনো এসিড। দুধ ভালো ঘুম হতে সহায়তা করে।

ডিম: ডিম কেবলমাত্র উচ্চমানের প্রোটিন এবং পুষ্টি সমৃদ্ধ নয় এটি ট্রিপটোফ্যান এর প্রাকৃতিক উৎস। যা এক ধরনের অ্যামাইনো এসিড। এটি সেরোটোনিন তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে যা স্লিপ সাইকেল নিয়ন্ত্রনে সহায়তা করে।

ছোলা: ছোলা অ্যামিনো অ্যাসিড ট্রিপটোফ্যান সমৃদ্ধ। যা মেলাটোনিন উৎপাদনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। ছোলাতে ভিটামিন বি ৬ থাকে, যা সেরোটোনিন উৎপাদনে অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। মেলাটোনিন ও সেরোটোনিন উভয় দুর্দান্ত ঘুম হতে সহায়তা করে।

কলা: ম্যাগনেসিয়াম এর ঘাটতির ফলে ঘুমের সমস্যা দেখা দিতে পারে। আর কলা ট্রিপটোফ্যান এবং ম্যাগনেসিয়াম এর দুর্দান্ত উৎস। তাই এটি ভালো ঘুম হতে সাহায্য করে।

খেজুর: বাচ্চা যদি মিষ্টি জাতীয় কিছু খেতে চায় তাহলে খেজুর সবচেয়ে ভাল অপশন হতে পারে। খেজুর ভালো ঘুমের জন্য দুর্দান্ত কাজ করে। খেজুরিয়া ভিটামিন বি ৬ এবং পটাশিয়াম থাকে যা ঘুমের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

আখরোট: আখরোট মেলাটোনিন হরমোন এর একটি দুর্দান্ত উৎস। যা ঘুম নিয়ন্ত্রণের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এতে স্বাস্থ্যকর ফ্যাট, ফাইবার এবং উদ্ভিদ ভিত্তিক প্রোটিন থাকে। যা ভালো ঘুমের জন্য দুর্দান্ত কাজ করে।