নিজের অজান্তে করা এইসব ভুলে কম বয়সেই টাক হচ্ছে পুরুষ

চুল একজন মানুষের ব্যক্তিত্ব প্রকাশ করে। কিন্তু নানা কারণেই আমাদের চুল ঝরতে দেখা যায়। এই সমস্যা নারী এবং পুরুষ উভয়েরই হয়ে থাকে। তবে পুরুষদের চুল পড়ার পেছনে রয়েছে এমন কিছু ভুল, যা তারা নিজের অজান্তেই করে থাকেন।

দেখা যায়, বেশিরভাগ পুরুষ চুলে শ্যাম্পু লাগান, ঘষেন, ফেনা হলে ধুয়ে ফেলেন। কিন্তু ব্যাপারটা অত সহজও নয়। কারণ চুল পরিষ্কার করার সময়ে অজান্তেই পুরুষরা কিছু ভুল করে ফেলেন। সেই কারণেই অনেক সময় খুব কম বয়সেই চুল পড়ে টাক পড়ে যাওয়ার প্রবণতা তৈরি হয়।

চলুন তবে জেনে নেয়া যাক পুরুষদের অজান্তেই করে ফেলা সেই ভুলগুলো সম্পর্কে-

গরম পানি দিয়ে শ্যাম্পু

প্রচণ্ড গরম পানি চুলের স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর। ঈষদুষ্ণ পানিতে শ্যাম্পু করা সবচেয়ে ভালো। কিন্তু অনেকেই এটা না বুঝে প্রত্যেকদিন গরম পানিতে চুল ধুয়ে ফেলেন। তাতেও চুল পড়ার সমস্যা বাড়ে।

কন্ডিশনার ব্যবহার না করা

অনেক পুরুষের ভ্রান্ত ধারণা যে কন্ডিশনার শুধু নারীদের জন্য। আসলে তেমন কিছু নয়। শ্যাম্পু করার পর চুলের স্বাভাবিক আর্দ্রতা কমে যায়। সেটা নারী-পুরুষ দু’জনের ক্ষেত্রেই। তাই একটা ভালো কন্ডিশনার সবারই ব্যবহার করা প্রয়োজন।

অত্যাধিক শ্যাম্পু

ভাবছেন ছোট চুল, তাড়াতাড়ি শুকিয়ে যাবে। তাই প্রত্যেকদিনই শ্যাম্পু করে ফেলছেন? এতেই মারাত্মক ক্ষতি হয়ে যাচ্ছে। রোজকার ধুলো-ময়লা-তেল পরিষ্কার করতে প্রত্যেকদিন শ্যাম্পু করলে চুল রুক্ষ হয়ে যাবে অনেক তাড়াতাড়ি। চুল পড়ার সমস্যাও বাড়বে। চুল দেখাবে প্রাণহীন।

ভেজা চুল আঁচড়ানো

পুরুষদের একটা বদভ্যাস রয়েছে। গোসল করে বেরিয়েই আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে চুল আঁচড়ে ফেলেন। এটাই মারাত্মক ভুল। আপরা চুল যতই ছোট হোক, তাতে জট পড়বেই। ভেজা চুলের গোঁড়া অনেক বেশি নরম থাকে। তখন বেশি টানাটানি করলে চুল বেশি পড়বে। তাই এ বিষয়ে সতর্ক হন। কিছুক্ষণ অপেক্ষা করে তারপর চুল আঁচড়ান।