সারা জীবন সুস্থ ও সুখী থাকতে এই বিষয়গুলো মেনে চলা জরুরি

সুস্থতা সবার কাম্য। সেই সঙ্গে সুখে থাকার ইচ্ছা বা চেষ্টার কমতি কোনো মানুষেরই থাকে না। তবু মানুষ অসুস্থ হয়, আবার অসুখীও থাকেন। তবে আপনি চাইলে নিজেকে একজন সুস্থ ও সুখী মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে পারেন।

তবে এর জন্য আপনার কিছু বিষয় সম্পর্কে জানা জরুরি। যে বিষয়গুলো আপনাকে সবসময় সুস্থ থাকতে সহায়তা করবে, সেই সঙ্গে আপনি হয়ে উঠবেন একজন সুখী মানুষও। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক সেই বিষয়গুলো কী কী-

* বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে দুটো জিনিস নিয়মিত চেক করুন।

> ব্লাড প্রেসার

> ব্লাড সুগার।

* চারটি জিনিস একেবারেই ভুলে যান।

> মানসিক উৎকণ্ঠা বা উদ্বেগ

> সবসময় দুঃখে কাতর হয়ে থাকা

> অতীত নিয়ে সর্বদা অনুশোচনা করা

> বয়স বাড়ছে এটা নিয়ে দুশ্চিন্তা করা।

* পাঁচটি জিনিস খাবার থেকে যত পারুন এড়িয়ে চলুন।

> লবণ

> চিনি

> অতিরিক্ত চর্বি জাতীয় খাবার

> অতিরিক্ত ভাজা ভূজি খাবার

> বাইরের কেনা খাবার বা প্রসেসেড ফুড।

* পাঁচটি জিনিস খাবারে যত পারুন বাড়িয়ে নিন।

> ফলমূল

> বাদাম

> প্রোটিন জাতীয় খাবার

> সব রকমের সবুজ শাক

> সব রকম সবুজ সবজি, সিম বা মটরশুটি ইত্যাদি।

* মানসিক শান্তি বা সুখী হতে সাতটি জিনিস সবসময় সঙ্গে রাখার চেষ্টা করুন।

> সবসময় সুচিন্তা

> নিজের সমগ্ৰ পরিবার

> একজন প্রকৃত ভালো বন্ধু

> অল্পতে খুশি হওয়ার চেষ্টা

> একটি নিরাপদ ঘর কিংবা আশ্রয়

> কিছু সময় আধ্যাত্মিক চর্চায় বা সৎসঙ্গ দেয়া

> অতিরিক্ত অর্থ চিন্তা থেকে নিজেকে দূরে রাখা।

* ছয়টি জিনিসের চর্চা রাখুন।

> অহংকার না করা

> ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখা

> সরল ও সৎ জীবন যাপন

> সবার সঙ্গে হাসিমুখে কথা বলা

> মানুষের সঙ্গে ভালো আচরণ করা

> নিয়মিত শরীর চর্চা করা ।কিছুক্ষণ হাঁটা নিয়মিত।

* সাতটি জিনিস এড়িয়ে চলুন।

> ঘৃণা

> কর্য

> লোভ

> আলস্য

> সময়ের অপচয়

> পরচর্চা, পরনিন্দা

> কোনো রূপ নেশা বা আসক্তি।

* পাঁচটি জিনিস কখনোই করবেন না।

> অতিরিক্ত দূর্বল হয়ে বিশ্রাম নেয়া

> অতিরিক্ত ক্ষুধা নিয়ে খেতে যাওয়া

> অতিরিক্ত দূর্বল হয়ে ঘুমোতে যাওয়া

> একেবারে অসুস্থ হয়ে ডাক্তারের কাছে যাওয়া

> অতিরিক্ত পিপাসায় কাতর হয়ে পানি পান করা।