শুধুমাত্র ব্রাশ করলেই হবেনা পাশাপাশি মাউথ ওয়াশ ব্যবহার করাও খুব জরুরী

সেই ছোটবেলা থেকে আমাদের শেখানো হয়েছে নিয়মিত দাঁত ব্রাশ করার জন্য। আমরা মধ্যে সকলেই সকালে ঘুম থেকে উঠে এই কাজটি করে থাকে। আর যারা সত্যিকারের স্বাস্থ্য সচেতন তাঁরা রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগেও দাঁত মাজেন। আর এর ফলে আমরা ভাবি যে আমাদের দাঁত হয়তো খুব ভালো থাকছে। কিন্তু তার পরেও তো আমাদের দাঁত ব্যথা করে, রক্ত পড়ে মাড়ি থেকে, মুখ থেকে দুর্গন্ধও পাওয়া যায়। অর্থাৎ শুধু ব্রাশ করাই যথেষ্ট নয় মুখের আর দাঁতের সার্বিক পরিচর্যার জন্য। আপনাকে সঙ্গে অবশ্যই রাখতে হবে মাউথ ওয়াশ। কেন? আসুন বিস্তারিত জানাই আপনাদের।

১. ভিতর থেকে পরিষ্কার করে মাউথ ওয়াশ

গবেষণা বলছে আমাদের দাঁতে, মাড়িতে, জিভে প্রায় ১০ থেকে ৫০ মিলিয়ন ব্যাকটেরিয়া থাকে। আপনার প্রত্যেক দাঁতের উপরে গড়ে এক হাজার থেকে এক লক্ষ ব্যাকটেরিয়া থাকতে পারে। কিন্তু এই পরিমাণ ব্যাকটেরিয়া শুধু ব্রাশ করলে যেতে পারে না। কারণ সত্যি বলতে কী, যতই বিজ্ঞাপনে বলা হোক না কেন, ব্রাশ দাঁতের সব অংশে পৌঁছায় না। আর সেখানেই ব্যাকটেরিয়া বেশি পরিমাণে থাকে। কিন্তু মাউথ ওয়াশ যেহেতু তরল তাই সহজেই পৌঁছে যায় দাঁতের সব অংশে আর বের করে ব্যাকটেরিয়াকে। দাঁতের ফাঁকে খাবারের কণাও আটকে থাকে না। তাই দাঁত হয় ভিতর থেকে পরিষ্কার আর তার ফলে দাঁতে ক্যাভিটি বা গর্ত তৈরি হয় না।

২. প্লাক দূর করে

ভাবুন তো, আপনি যখন হাসছেন তখন যদি আপনার হলুদ দাঁত দেখা যায় কী খারাপই না লাগে! দাঁত ব্রাশ করার পরেও এই হলুদ দাগ যাচ্ছে না। আসলে দীর্ঘদিন ধরে খাবারের অবশিষ্ট অংশের ছোপ পড়তে পড়তে দাঁতের উপর এই হলুদ আস্তরণ পড়ে যায়। একেই ডাক্তারি ভাষায় প্লাক বলে। আপনি যদি মাউথ ওয়াশ নিয়মিত ব্যবহার করেন তাহলে এই হলুদ ছোপ সহজেই দূর হবে আর নতুন ছোপ আর পড়বে না। তাই দাঁত সাদা রাখার জন্য মাউথ ওয়াশ ব্যবহার করুন নিয়মিত ভাবে।

৩. দুর্গন্ধ দূর হবে দুর্গন্ধ

আমাদের একটি কমন সমস্যা হল মুখে দুর্গন্ধ হওয়া। আপনি কারোর সঙ্গে কথা বলছেন আর মুখ থেকে গন্ধ আসছে, এটা খুবই খারাপ আপনার পারসোনালিটির জন্য। আর শুধু ব্রাশ করে এই দুর্গন্ধ দূর হয় না। তার জন্য আপনাকে মাউথ ওয়াশ ব্যবহার করতেই হবে। আপনি যে কোনও ভালো ফ্লেভারের মাউথ ওয়াশ কিনে নিন। দাঁত ব্রাশ করার পর মুখে মাউথ ওয়াশ নিয়ে খানিক ক্ষণ রেখে দিন। তারপর কুলকুচি করে ফেলে দিন আর পরিষ্কার জল দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। দেখবেন সারা দিন আপনার মুখের ভিতরটা খুব তরতাজা লাগছে।

৪. মাড়ির স্বাস্থ্য ধরে রাখে

এটা শুনে একদমই অবাক হবেন না। একটা ভালো মাউথ ওয়াশ কিন্তু মাড়ি থেকে রক্ত পড়ার মতো সমস্যাও দূর করতে সক্ষম। মাউথ ওয়াশে আছে ফ্লুওরাইড যা মাড়ি মজবুত করে। এটা আমাদের এনামেল শক্ত করতেও খুবই কার্যকরী। আর আমরা তো সবাই জানি যে দাঁতের প্রধান উপাদানই হল এনামেল। তাই নিয়মিত মাউথ ওয়াশ দিয়ে মুখ পরিষ্কার করুন আর মাড়ির যত্ন নিতে থাকুন।

তাহলে এবার থেকে আর শুধু ব্রাশ করা নয়। নিয়ম করে মাউথ ওয়াশ দিয়ে মুখ পরিষ্কার করুন। আর এর পাশাপাশি লজেন্স, গুটখা এইসব খাওয়া কমান। খাবার খাওয়ার পর মুখ ধুয়ে নিন প্রতি বার। তাহলেই দেখবেন আপনার দাঁত খুব ভালো থাকছে।