শীতে ত্বকের যত্নে গ্লিসারিন ব্যবহারের কিছু উপায় জেনে নিন

স্বচ্ছ ও গন্ধহীন তরল গ্লিসারিন। ঘন ও মিষ্টি এই উপাদানটি রূপচর্চায় ব্যবহৃত হয়ে আসছে সেই আদিকাল থেকেই। সব ধরনের ত্বকের ক্ষেত্রেই কার্যকরী এই গ্লিসারিন। ত্বকের ছোটখাটো সমস্যা, ফুসকুড়ি, ব়্যাশ, ব্রণ, জ্বালাভাব কমাতেও গ্লিসারিন খুব উপকারী।

এই শীতে ত্বকের সুরক্ষায় নিশ্চিন্তে ব্যবহার করতে পারেন গ্লিসারিন। কিন্তু কীভাবে? গ্লিসারিন লাগানোর সঠিক পদ্ধতি সম্পর্কে আলোচনা করা হলো-

* গ্লিসারিন ত্বকের প্রাকৃতিক ময়শ্চারাইজার হিসেবে কাজ করে। বাদাম তেলের সঙ্গে গ্লিসারিন মিশিয়ে লাগানো উচিত।

* ত্বক খুব বেশি নিস্তেজ হয়ে পড়লে গ্লিসারিনের সঙ্গে অ্যালোভেরা মাস্ক লাগাতে পারেন। ২ থেকে ৩টি সতেজ অ্যালোভেরা পাতার জেলের সঙ্গে ২ চামচ গ্লিসারিন মিশিয়ে নিজের মুখে লাগানো উচিত। ২০ থেকে ২৫ মিনিট রেখে মুখ পরিষ্কার করে নিন।

* তাৎক্ষণিক ঔজ্জ্বল্যের জন্য ১টা পাকা কলা চটকে গ্লিসারিন মিশিয়ে নিজের মুখে লাগান। ২৫ মিনিট পর্যন্ত এই প্যাক মুখে লাগিয়ে রেখে ধুয়ে নিন। নিয়মিত এই উপায় করলে মুখ উজ্জ্বল হবে।

* গ্লিসারিন একটি ভালো মেকআপ রিমুভার হিসেবে কাজ করে। মেকআপ পরিষ্কার করার জন্য রিমুভারের স্থানে এটি ব্যবহার করতে পারেন। এর জন্য কটন বলে গ্লিসারিন লাগিয়ে পুরো মুখে লাগান। চোখ ও ঠোঁটে গ্লিসারিন লাগাবেন না।

* টোনার হিসেবে গ্লিসারিন ব্যবহার করা যায়। এর জন্য আধা কাপ গোলাপজলে কয়েক ফোঁটা গ্লিসারিন মেশান। তার পর এতে তুলো ভিজিয়ে ত্বক পরিষ্কার করুন।