মজাদার “পাফি পেটিস”

বাইরে বের হলে কখনো কখনো পেটিস কিনে খান নিশ্চয়ই? তবে সেই পেটিসে আসল স্বাদটা আসলে পাওয়া যায় না। পেটিস গরম গরম খেতেই বেশি ভালো। তাই ঘরে বসেই তৈরি করে নিন মজাদার পাফি পেটিস। তৈরি করাও খুব সহজ। তাই বিকেলের নাস্তায় ঘরে বসে বানিয়ে ফেলুন পাফি পেটিস। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক পাফি পেটিস তৈরির রেসিপিটি-

ডো তৈরির উপকরণ: ময়দা দুই কাপ, তেল দুই টেবিল চামচ, সুজি দুই টেবিল চামচ, লবণ স্বাদ মতো, বেকিং পাউডার আধা চা চামচ, চিনি দুই চা চামচ, ডিম একটি।

পেস্টের জন্য উপকরণ: তেল দুই টেবিল চামচ, ঘি দুই টেবিল চামচ, বাটার দুই টেবিল চামচ, ময়দা দেড় টেবিল চামচ।

পুরের জন্য: পেঁয়াজ এক কাপ, ডিম দুইটি, কাঁচামরিচ কয়েকটি, গাজর ১/৪ কাপ, তেজপাতা একটি, এলাচ কয়েকটি, দারুচিনি দুই টুকরা, লবঙ্গ দুই থেকে তিনটি, লবণ স্বাদ মতো, হলুদ আধা চামচ, গরম মশলা আধা চা চামচ, তেল এক টেবিল চামচ।

প্রণালী: প্রথমে শুকনা উপকরণগুলো মেখে তেল দিয়ে মেখে নিতে হবে। এরপর এতে একটি ডিম দিয়ে ভালো করে মাখতে হবে। এর ভেতর নরমাল পানি দিয়ে রুটির ডোর মতো ডো তৈরি করতে হবে।

তৈরি ডো এক ঘণ্টার জন্য ঢেকে রাখতে হবে। এর ভিতর ছয় টেবিল চামচ তেল, ঘি, বাটা এবং দেড় টেবিল চামচ ময়দার একটা পেস্ট তৈরি করে ফ্রিজে ১৫ মিনিট রেখে দেবেন। এক ঘণ্টা পর ডো বের করে দুই থেকে তিন মিনিট মাখতে হবে। এই ডো দিয়ে ছয় থেকে সাতটি পাতলা রুটি বানাতে হবে। রুটি যেন অনেক অনেক পাতলা হয়।

প্রতিটি রুটির মাঝখানে পরিমাণ মতো তেল বাটারের পেস্ট ব্রাশ করে এর উপর ময়দা ছিটিয়ে দিতে হবে। পরপর ছয় থেকে সাতটি রুটি একটার উপর একটা দিয়ে ১০/১৫ মিনিটের জন্য নরমাল ফ্রিজে রাখতে হবে। ফ্রিজ থেকে বের করে হালকা হাতে যে সাতটি রুটি একসঙ্গে রেখেছেন সেগুলোকে বেলে নিতে হবে।

রুটিগুলোকে দুটি পরোটার মতো মোটা করে বেলতে হবে। এখানে আট থেকে নয়টা পেটিস হবে। পছন্দ মতো পুর তৈরি করে পেটিস বানিয়ে নেবেন। পেটিসের উপর ডিমের হলুদ অংশ ব্রাশ করে দেবেন।

ওভেনে তৈরি: প্রিহিট করা ওভেনে ১৮০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে ১৫ মিনিট বা উপরে রং না আসা পর্যন্ত বেক করবেন।