হঠাৎ মুখের ফোলা ভাব নিয়ে চিন্তিত না হয়ে জেনে নিন কারন ও সমাধান

কোনো একদিন ঘুম থেকে উঠে আয়নায় মনে হচ্ছে মুখটা একটু ফোলা ফোলা। কিংবা কেউ হয়তো হঠাৎ বলে বসল, মুখটা ফোলা দেখাচ্ছে কেন? চিন্তার বিষয়ই বটে। নানা রকম রোগের কারণে মুখ ফোলা দেখায়—যার কয়েকটি তো জটিলই। আবার খুব সাধারণ কিছু কারণেও মুখমণ্ডল বা চেহারা ফুলতে পারে। তাই জানা উচিত কখন সতর্ক হবেন।

মুখ বা চোখের নিচে ফোলা মানে আপনার ত্বকের নিচে পানি জমেছে। খুব সাধারণ কিছু কারণেও এটা হতে পারে। যেমন অ্যালার্জি, সর্দিতে মুখের ও চোখের নিচের শিরা-উপশিরা প্রসারিত হয়, নানা রকম রাসায়নিক নিঃসৃত হয়—যার কারণে ফোলা দেখায়। অনেক সময় ঘুম না হলে বা অনেক বেশি সময় ধরে ঘুমালে বা দীর্ঘ যাত্রার পর মুখ ফুলতে পারে।

এগুলো সাময়িক ব্যাপার এবং ভয়ের কিছু নেই।

কিডনি অকার্যকারিতায় শরীরে পানি জমতে পারে। তার একটা প্রথম লক্ষণ হলো মুখ ফোলা। লক্ষ্য করুন—পায়ে পানি জমে কি না, অরুচি, ওজন হ্রাস, প্রস্রাবের পরিমাণ কমে যাওয়া ইত্যাদি উপসর্গ আছে কি না। উচ্চ রক্তচাপ ও ডায়াবেটিসের রোগীর কিডনি জটিলতা হতেই পারে। এগুলো নিয়ন্ত্রণে আছে কি না দেখে নিন।

কিছু ওষুধপত্রের কারণেও মুখ ফোলে। যেমন ব্যথানাশক বা কিছু রক্তচাপের ওষুধ।

থাইরয়েডের সমস্যায় চেহারা ফোলা দেখাতে পারে। ক্লান্তি, ওজন বৃদ্ধি, কোষ্ঠকাঠিন্য, চেহারা ফ্যাকাশে হয়ে যাওয়া, মাসিকের গন্ডগোল ইত্যাদি হলো এমন সমস্যার উপসর্গ। নারীদের থাইরয়েডের সমস্যা বেশি হয়।

হৃদ্রোগীদেরও চেহারা ফুলতে পারে। সঙ্গে থাকতে পারে শ্বাসকষ্ট। হৃদ্রোগ বা উচ্চ রক্তচাপের রোগীরা অবশ্যই লবণ নিয়ন্ত্রণ করবেন। কেননা লবণ পানি টেনে আনে। কিডনি রোগীদের অনেক সময় পানিও মেপে খেতে দেওয়া হয়।

এক-দুদিন নয়, প্রায়ই মুখ ফোলা দেখালে বা দেহের অন্য কোথাও পানি জমলে এবং অন্যান্য উপসর্গ থাকলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।