পাকা চুল গোঁড়া থেকে কালো করার এই ৩টি ঘরোয়া পদ্ধতি

অল্প বয়সেই অনেকের চুল পেকে যায়। সঠিক পুষ্টির অভাব, হরমোন সমস্যা, খাবার, আবহাওয়া নানা কারণে চুলে অকালপক্কতা দেখা দিতে পারে। মিনারেল, ভিটামিন-এ, বি, কপার, আয়রনের অভাবে চুল পেকে যেতে পারে। এছাড়া অপর্যাপ্ত ঘুম, জীবন-যাপনের অনিয়ম, অযত্ন ও দুশ্চিন্তার কারনেও অনেকের চুল তাড়াতাড়ি পেকে যায়।

পাকা চুল কালো করতে অনেকেই বিভিন্ন ধরনের হেয়ার ডাই ব্যবহার করে থাকেন। এ সকল ডাইয়ের ক্ষতিকর রাসায়ানিক উপাদান চুল কালো করলেও চুলের মারাত্মক ক্ষতি করে। শুধু তাই নয়, যাদের এসব ডাইয়ে অ্যালার্জি আছে তাদের আরও ভয়াবহ স্বাস্থ্যঝুঁকি থাকে। তাই এসকল ডাই ব্যবহার না করে চুল পাকা রোধে প্রাথমিক পর্যায়েই কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি অবলম্বন করা যেতে পারে।

কলপ ব্যবহারে পরিবর্তে এই ঘরোয়া উপায়গুলো ব্যবহার করে দেখতে পারেন। এই উপায়গুলো আপনার চুলকে কালো করতে সাহায্য করবে।

১। আমলকি একটি পাত্রে নারকেল তেল নিয়ে এর সঙ্গে শুকনো আমলকি বা আমলকির গুঁড়ো দিয়ে জ্বাল দিন। ঠাণ্ডা হয়ে গেলে এই তেলটি চুলে ব্যবহার করুন। এটি সপ্তাহে একবার বা দুইবার ব্যবহার করুন। এছাড়া এক টেবিল চামচ আমলকির পেস্ট এবং লেবুর রস মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। এটি চুলে ভাল করে ম্যাসাজ করুন। পরের দিন শ্যাম্পু করে ফেলুন।

২। ব্ল্যাক কফি দ্রুত সাদা চুল কালো করতে চাইলে ব্ল্যাক কফি অতুলনীয়। তরল ব্ল্যাক কফি দিয়ে চুলের গোঁড়া থেকে আগা পর্যন্ত ধুয়ে নিন। এটি স্থায়ীভাবে চুল কালো না করলেও কিছু সময়ের জন্য চুল কালো করবে।

৩। পেঁয়াজ এবং লেবুর রস তিন চা চামচ পেঁয়াজের রস এবং দুই চা চামচ লেবুর রস মিশিয়ে তালুতে ভাল করে লাগান। ৩০ মিনিট পর শ্যাম্পু করে ফেলুন। এটি সপ্তাহে ৩ থেকে ৪ বার ব্যবহার করুন। শরীরে ভিটামিন এ, জিঙ্ক ও কপারের অভাব চুলকে প্রভাবিত করে।

মেলানিন কমে যাওয়ায় চুলের রং কালো থেকে ধূসর বা সাদা হওয়ার দিকে ঝোঁকে। অকালে চুল পেকে গেলে অনেকেই অবসাদে ভোগেন। কালো চুল রং হারিয়ে তার সৌন্দর্যও হারায়। তাই সহজ এই ঘরোয়া উপায় জানা থাকলে পাকা চুলের হাত থেকে মুক্তি তো ঘটবেই এবং চুলের কোনও ক্ষতিও হবে না।