থাইরয়েডের সমস্যায় ভুগলে আজ থেকেই এড়িয়ে চলুন এই ৬ জিনিস

থাইরয়েডের সমস্যায় কিছু জিনিস খাওয়া উচিত নয়। থাইরয়েড হয় ভুল খাদ্যাভ্যাস এবং জীবনযাত্রার কারণে। থাইরয়েড হল গলার সামনে অবস্থিত একটি গ্রন্থি, যা হরমোন তৈরি করে। থাইরয়েডের সমস্যা হলে এই গ্রন্থি হরমোনের উৎপাদন কমিয়ে দেয়, যার কারণে শারীরিক সক্ষমতা দুর্বল হয়ে পড়ে।

মুলোতে এমন অনেক পুষ্টি উপাদান পাওয়া যায়, যা স্বাস্থ্যের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ, তবে থাইরয়েড রোগীদের মুলো খাওয়া এড়িয়ে চলা উচিত। গবেষণায় দেখা গেছে, মুলো থাইরয়েডের উপর থেকে নিয়ন্ত্রণ ব্যাহত করে।

চা বা কফি থাইরয়েড রোগীদের ক্ষতি করতে পারে। এতে ক্যাফিন থাকে এবং ওষুধ খাওয়ার পরে ক্যাফিন সেবন করলে রোগ বাড়তে পারে। থাইরয়েডের সমস্যা থাকলে ক্যাফিন আছে এমন খাদ্যের থেকে দূরে থাকা উচিত কারণ, ক্যাফিন থাইরয়েড গ্রন্থি এবং থাইরয়েডের স্তর উভইয়েরই বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।

হাইপোথাইরয়েডিজমের ক্ষেত্রে, সোয়া জাতীয় খাবার আয়োডিন শোষণে বাধা দেয়, যা সমস্যা বাড়িয়ে দিতে পারে। সোয়াবিনে ফাইটোয়েস্ট্রোজেন পাওয়া যায়, যা থাইরয়েড হরমোন প্রস্তুতকারী এনজাইমের কার্যকারিতাকে ব্যাহত করে।

গ্লুটেন যুক্ত খাবার শরীরে প্রদাহ বাড়াতে পারে।

রেড মিটে স্যাচুরেটেড ফ্যাট এবং কোলেস্টেরল খুব বেশি থাকে। রেড মিট খেলে চর্বি খুব দ্রুত বাড়ে।

থাইরয়েড রোগীদের ফুলকপি খাওয়া উচিত নয়। বাঁধাকপি ও ফুলকপিতে প্রচুর পরিমাণে গয়েট্রোজেন পাওয়া যায়, যা থাইরয়েডের সমস্যা বাড়িয়ে দিতে পারে।