এই শীতে নবজাতকের কোমল, সংবেদনশীল ত্বকের যত্ন নিন এই উপায়েই

শিশুদের ত্বক কোমল ও সংবেদনশীল৷ স্পর্শকাতর বলে বড়দের তুলনায় সহজেই সংক্রমণের শিকার হয়ে পড়ে শিশুরা ৷

তবে শীতকাল এলে তাদেরও ত্বক শুষ্ক হয়ে ওঠে৷ কী করে এ সময় যত্ন নেবেন সদ্যোজাত শিশুর ত্বকের? তার জন্যই কিছু টিপস (Newborn Skincare Tips) ৷

বাচ্চাদের জন্য কিছু কেনার সময় অবশ্যই প্রডাক্টের লেবেল পড়ে নেবেন৷ মূলত কী কী উপাদান আছে, দেখে নিতে হবে৷ সালফেট, সিলিকন, কৃত্রিম গন্ধ বা প্যারাবিনের মতো ক্ষতিকর উপাদান থাকতে সেই জিনিস কখনওই শিশুর জন্য কিনবেন না ৷

চিকিৎসকের নিষেধ না থাকলে শিশুকে নিয়মিত স্নান করাবেন৷ শিশুদের জন্য নির্ধারিত সাবান, শ্যাম্পু দিয়েই ঈষদুষ্ণ জলে স্নান করাবেন৷ মনে রাখবেন, যত কম রাসায়নিক, তত শিশুর ত্বকের জন্য উপকারী৷

শিশুর ত্বক নরম ও কোমল রাখার জন্য নিয়মিত ময়শ্চরাইজ করে যেতে হবে৷ স্নানের পর ময়শ্চারাইজ করা হয়৷ শুষ্কতার এড়াতে গরমে লাইট লোশন এবং শীতে ক্রিম ব্যবহার করুন৷

নারকেল তেল, ভিটামিন ই, আমন্ড অয়েল দিয়ে শিশুর ত্বক মালিশ করুন৷ ত্বকের পেলবভাব ও আর্দ্রতা ধরা থাকবে এর ফলে৷

যে ডিটারজেন্ট দিয়ে শিশুর জামাকাপড় কাচবেন, তাতে রাসায়নিক উপাদান যেন কম থাকে৷ নয়তো অতিরিক্ত রাসায়নিকের প্রভাবে শিশুর ত্বকে ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে৷ গন্ধহীন বা সামান্য গন্ধ-সহ লিক্যুইড ডিটারজেন্ট দিয়ে শিশুর জামাকাপড় কাচুন৷ সাবানে রাসায়নিক উপাদান যত কম থাকবে, ততই ভাল শিশুর জন্য ৷