দারুণ মজার ‘কাঁচা কলার দম’

আলুর দম নিশ্চয়ই খেয়েছেন। কিন্তু কলার দম কি খেয়েছেন কখনো? খেতে বেশ সুস্বাদু হয় কলার দম। তাই কাঁচা কলার এই নতুন রেসিপিটি আজই তৈরি করে ফেলুন। যা খাবারের স্বাদ পাল্টে রুচি বাড়িয়ে দিবে।

চলুন তবে জেনে নেয়া যাক রেসিপিটি-

উপকরণ: কাঁচা কলা ৫ টি, নতুন আলু ৩০০ গ্রাম, পেঁয়াজ বাটা ২ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ কুচি হাফ কাপ, তেল হাফ কাপ, আদা বাটা ১ চা চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, হলুদ গুঁড়া হাফ চা চামচ, মরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ, ধনিয়া গুঁড়া হাফ চা চামচ, ভাজা জিরা গুঁড়া ১ চা চামচ, গরম মসলা ১ চা চামচ, লবণ স্বাদমতো, তেজপাতা ২টি, দারচিনি ২টি, এলাচ ২টি, গোল মরিচ ৭/৮টি, কাঁচামরিচ আস্ত ৫/৬টি, টমেটো কুচি ২টি, ধনেপাতা কুচি ১ মুঠো, লেবুর রস ১ চা চামচ, চিনি আধ চা চামচ।

প্রণালী:

প্রথমে কলার খোসা ছাড়িয়ে টুকরো করে নিন।

এবার একটু হলুদ মাখিয়ে হালকা সেদ্ধ করে পানি ঝরিয়ে নিন।

একই ভাবে আলুও সেদ্ধ করে পানি ঝরিয়ে নিন। অবশ্যই খেয়াল রাখবেন যেন আলুগুলো আস্ত থাকে।

এবার ননস্টিক প্যানে তেল দিয়ে সামান্য গরম হলে পেঁয়াজ বাটা ও কুচি দিয়ে হালকা বাদামি করে সামান্য পানি দিয়ে হলুদ গুঁড়া, মরিচ গুঁড়া, ধনিয়া গুঁড়া, আদা বাটা, রসুন বাটা ও পরিমাণমতো লবণ, তেজপাতা, দারচিনি, গোলমরিচ, এলাচ দিয়ে ভালোকরে মসলাটা কষিয়ে নিন।

সেই মসলায় টমেটো কুচি দিয়ে সামান্য কিছু সময় নেড়েচেড়ে আবারও একটু কষান। এই সময় একটু চিনি দিয়ে নিন।

টমেটোর সঙ্গে মশলাটা ভালোমতো কষাতে হবে।

তেল যখন ভেসে উঠবে তখন সেদ্ধ আলুগুলো দিয়ে সঙ্গে আধা কাপ গরম পানি দিয়ে ৫ মিনিটের জন্য ঢেকে দিন।

এরপর কলার সেদ্ধ টুকরোগুলো দিয়ে নেড়ে দিন। আবারো অল্প আঁচে আরও ৬ থেকে ৭ মিনিট ঢাকনা দিয়ে ঢেকে রাখুন।

ঝোল শুকিয়ে এলে আর তেল ওপরে ভেসে উঠলে ধনেপাতা কুচি ও আস্ত কাঁচামরিচ, ভাজা জিরা গুঁড়া আর গরম মসলা দিয়ে নেড়ে দিয়ে ২ মিনিট ঢেকে রাখুন।

নামানোর ঠিক আগে লবণ চেখে নিন আর একটু লেবুর রস ওপরে ছড়িয়ে দিন।

ব্যস তৈরি হয়ে গেলো। এবার রুটি, পরোটা বা সাদা ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন সুস্বাদু কাঁচা কলার দম।