এই শীতে শিশুদের সুস্থ্য রাখার সেরা ৫ ব্যায়াম শিখে নিন

শিশুর রোগ-ব্যাধিসোনামনির যত্ন

শিশুদের কাজই লাফালাফি আর দুরন্তপনায় মেতে থাকা। দৌড়াবে, খেলবে, পড়বে, উঠবে- এর ভেতর দিয়েই তৈরি হবে আত্মবিশ্বাস ও চলাফেরার কৌশল। সবচেয়ে বড় ব্যাপার হল এমন দুরন্তপনা তাদের শরীরের হাড় মজবুত এবং শারীরিক অন্যান্য গঠনেও সহায়তা করে।বাচ্চার সুস্থভাবে বেড়ে ওঠাও অনেকাংশে নির্ভর করে শারীরিক এসব কসরতের মাধ্যমে।

কিন্তু শহরের এই বদ্ধ খাঁচায় বাচ্চাদের সে সুযোগ খুবই কম। তবে সামান্য সচেতন হলেই বাচ্চাদের উপযোগী ব্যায়াম করানো সম্ভব। যেমন-

দড়ি লাফ

দড়ি লাফ এমন একটি সহজ ব্যায়াম যা ঘরে বাইরে বা বারান্দাতেও করা সম্ভব। বাচ্চাদের জন্য তা আরও সহজ। অল্প সময়ে শরীরের বাড়তি মেদ ঝরানো এবং সহনশক্তি বাড়ানোর কাজে দড়ি লাফের জুড়ি নেই। বাড়ির শিশুদের খেলতে দিন,

সঙ্গে নিজেও খেলুন।এই ব্যায়ামে হৃৎপিণ্ড ও ফুসফুসের সক্ষমতা বাড়বে। পাশাপাশি শরীরের গতি, ভারসাম্য এবং সমন্বয়ের চর্চা হবে। আধা ঘণ্টা দড়ি লাফে প্রায় ৫০০ ক্যালরি পোড়ানো সম্ভব।

বানর ঝুলনি

অনেক স্কুলের মাঠেই এখন মাঙ্কি বার বা বানর ঝুলনি থাকে। শিশুরা এমনিতেই এটা পছন্দ করে। একা বা দলবেঁধে একসঙ্গে ঝুলে থাকা তাদের খুব পছন্দ। এই ব্যায়ামে দুই হাত,

কাঁধ, পিঠসহ শরীরের ওপরের অংশকে সুগঠিত করতে এটা দারুণ কার্যকর। বাড়ির উঠোনে এমনকি ঘরের বারান্দাতেও ছোট্ট পরিসরে এই বানর ঝুলনি বানিয়ে নিতে পারেন।

সাইকেল চালানো

সাইকেল চালানো এমন এক ব্যায়াম যা সাঁতারের মতোই প্রায় পুরো শরীরে কাজ করে।সাইকেল চালিয়ে ঘেমে-নেয়ে ওঠা যায়। সাইকেল চালানো যেমন শ্বাসযন্ত্রসহ হৃৎপিণ্ডের জন্য ভালো, তেমনি তা মাংসপেশি সুগঠিত করা থেকে শুরু করে শরীরকে শক্তিশালী রাখতে সহায়ক। শিশুদের সাইকেল চালানোর সুযোগ দিন। শিশুর শারীরিক বৃদ্ধির জন্যও এটা দারুণ কার্যকর।

দৌড়ানো

শৈশব, কৈশোর, তারুণ্য, যৌবন সব সময়ের জন্যই দৌড় এক দারুণ ব্যায়াম। শিশুরা মনের আনন্দে দৌড়াতে পারলেও বড়দের জন্য দৌড়ানোটা কষ্টকর হয়ে ওঠে। খোলা মাঠে দৌড়ানোর সুযোগ পেলে খুবই ভালো। শিশুদের মাঠে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করুন। আর তা না হলে উদ্যানে বা ভোরের রাস্তায় দৌড়ানোর অভ্যাস তৈরি করতে পারেন। কোমরে চাকতি ঘোরানো কোমরে কোমরে চাকতি ঘোরানো দারুণ মজার এক খেলা। একসময়, বিশেষ করে কিশোরীদের মধ্যে এই কোমরে চাকতি ঘোরানো খেলা দারুণ জনপ্রিয় ছিল। একবার এই ঘূর্ণি আয়ত্ত করে ফেলতে পারলে শিশুরা এতেই মত্ত হয়ে থাকতে চাইবে। প্রতি ১০ মিনিটেই ১০০ ক্যালরি পোড়ানো সম্ভব এই চাকতি ঘোরানোয়।

সাঁতার কাটা

সাঁতার শিশুদের জন্য খুব ভালো একটা ব্যায়াম। এটা শিশুদের শরীর গঠনে দারুণ উপকারী। মাংসপেশির গঠন, ফুসফুস ও হৃৎপিণ্ড শক্তিশালী করা এবং শরীরে সহনশক্তি বাড়ানোয় সাঁতার দারুণ উপকারী।