নেদারল্যান্ডসে তাঁর নামে রয়েছে টিউলিপ ফুল, ম্যাডাম তুসোতে মোমের মূর্তি, জন্মদিনে জানুন ঐশ্বর্য রাই বচ্চনকে

বিশ্বসুন্দরী-অভিনেত্রী ও বচ্চন-বধূ ঐশ্বর্য রাই বচ্চনের (Aishwarya Rai Bachchan) জন্মদিন সোমবার। এদিন তিনি ৪৮ বছরে পা দিলেন (Happy Birthday Aishwarya Rai Bachchan)। ‘হম দিল দে চুকে সনম’, ‘দেবদাস’, ‘যোধা আকবর’, ‘ধুম’-এর মতো ছবিতে অভিনয় করে দর্শকের মনে পাকা জায়গা করে নিয়েছেন ঐশ্বর্য। তাঁর স্টাইল, ফ্যাশন ও সহকর্মীদের সঙ্গে রসায়নও নজর কেড়েছে ভক্তদের (Happy Birthday Aishwarya Rai Bachchan)।

তামিল ও বাংলা ছবিতেও কাজ করেছেন ঐশ্বর্য। তাঁর নাচের জাদুতেও মুগ্ধ ভক্তরা। তাঁর জন্মদিনে ঐশ্বর্য সম্পর্কে জানুন কিছু অজানা তথ্য…

১৯৯৪ সালে মিস ওয়ার্ল্ডের খেতাব জয় করেছিলেন ঐশ্বর্য রাই বচ্চন। এর অনেক আগে থেকে থেকেই অবশ্য টেলিভিশনে বিজ্ঞাপনের কাজ করতেন তিনি। নবম শ্রেণিতে পড়াকালীন প্রথম ক্যামলিন পেন্সিলের বিজ্ঞাপনে কাজ করেছিলেন তিনি।

মডেলিং বা অভিনয় নিয়ে প্রথমে এগোতে চাননি ঐশ্বর্য। তিনি মেডিসিন নিয়ে পড়াশোনা শুরু করেছিলেন। পরে আর্কিটেকচার নিয়ে মুম্বইতে পড়াশোনা করেন। তবে শেষ পর্যন্ত সব ছেড়ে ফিরে যান মডেলিংয়ের দুনিয়ায়।

১৯৯৩ সালের পেপসির বিজ্ঞাপন মনে আছে? ১৯৯৩ সালে মিস ইন্ডিয়া হওয়ার আগেই মহিমা চৌধুরী ও আমির খানের সঙ্গে সেই বিজ্ঞাপনে কাজ করেছিলেন ঐশ্বর্য।

১৯৯৭ সালে তামিল ফ্লিক ইরুভারে প্রথম অভিনয় করেন তিনি। বলিউডে ববি দেওলের সঙ্গে অওর পেয়ার হো গয়া ছবিতে অভিষেক তাঁর।

২০০৩ সালে কান চলচ্চিত্র উৎসবে তিনি প্রথম ভারতীয় অভিনেত্রী জুরি মেম্বার হিসেবে গিয়েছিলেন।

নেদারল্যান্ডসের কেউকেনহফ গার্ডেন্সে তাঁর নামে টিউলিপের ফুল রয়েছে।

অফরা উইনফ্রে-র শো-তে প্রথম ভারতীয় অভিনেত্রী তিনি এবং ম্যাডাম তুসোর মিউজিয়ামেও প্রথম তাঁর মূর্তি তৈরি হয়েছিল।

নিজের সম্পর্কে লেখা বিভিন্ন আর্টিকল সংগ্রহ করতে ভালোবাসেন ঐশ্বর্য রাই বচ্চন।

২০০৯ সালে পদ্মশ্রী সম্মানে ভূষিত হয়েছেন অভিনেত্রী।