কফিতে লেবু মিশিয়ে খেলে সত্যিই কি কমবে ওজন? দেখুন গবেষণা যা বলছে

ওজন কমানোর রেসে বর্তমানে অনেকেই দৌঁড়াচ্ছেন। কেউ সফল হচ্ছেন আবার কেউ বারবার চেষ্টা করেও ওজন কমাতে পারছেন না।

আসলে ওজন কমাতে গিয়ে অনেকেই শর্টকাট উপায়ের সন্ধান করেন। তবে সঠিক খাদ্যাভ্যাস ও ব্যায়ামের বিকল্প নেই ওজন কমানোর যাত্রায়।

বর্তমানে ইন্টারনেটে ওজন কমানোর হাজারও টিপস পেয়ে যাবেন। কিংবা জিরা পানি, হলুদ পানি, মধু-লেবু পানীয়সহ নানা ধরনের চর্বি কমানোর কৌশল পাবেন।

যেগুলো সবার জন্য প্রযোজ্য নয়। ঠিক এমনই ওজন কমানোর প্রবণতার আরেকটি সাম্প্রতিক সংযোজন হলো লেবু কফি।

সম্প্রতি লেবুর রস দিয়ে কফি খাওয়ার প্রবণতা বেশ আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। একজন টিকটকার পরামর্শ দিয়েছিলেন, এটি ফ্যাটকে দ্রুত গলাতে সাহায্য করে।

এমনকি এই পানীয় মাথাব্যথা ও ডায়রিয়া থেকেও মুক্তি দেয়। তবে সত্যিই কি কফিতে লেবু মিশিয়ে খেলে দ্রুত ওজন কমে?

কফি ও লেবুতে ভিন্ন ভিন্ন পুষ্টি উপাদান আছে। ওজন কমানোর ক্ষেত্রেও কফি ও লেবু উভয়ই উপকারী বলে বিশ্বাস করা হয়।

কফি সর্বাধিক ব্যবহৃত পানীয়গুলোর মধ্যে একটি। যাতে আছে ক্যাফেইন, যা বিপাকক্রিয়া বাড়ায়। কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্রকে উদ্দীপিত করে ও মেজাজ নিয়ন্ত্রণ করে।

অন্যদিকে লেবুতে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি। যা দৈনিক ক্যালোরি গ্রহণের পরিমাণ কমায়। লেবু অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের একটি দুর্দান্ত উৎস। যা শরীরের ফ্রি র‌্যাডিক্যাল দূর করে।

যদিও এটি ঠিক যে লেবু ও কফি দুটোই স্বাস্থ্যকর। তবে এই দু’টি উপাদানের কোনোটিই কিন্তু দ্রুত ওজন কমাতে পারে না। এটি সত্যিই যে, কফিতে লেবু যোগ করলে ক্ষুধা কমে যেতে পারে ও মেটাবলিজম রেট বাড়তে পারে।

তবে শরীরের চর্বি হারানো মোটেও সহজ কাজ নয়। যারা শুধু লেবুর পানি পান করেই ওজন কমাতে চান, তারা অবশ্যই এই ভুল ধারণা থেকে বেরিয়ে আসুন। সঠিক খাদ্যাভাস, শরীরচর্চা, ৮ ঘণ্টা গভীর ঘুমসহ জীবনধারণে পরিবর্তন আনলে অবশ্যই আপনি দ্রুত ওজন কমাতে পারবেন।

লেবু কফি কি মাথাব্যথা কমায় ও হজমশক্তি বাড়ায়?

এই বিষয়ে প্রচুর গবেষণা আছে। কিছু গবেষণায় দেখা গেছে, ক্যাফেইনের ভাসোকনস্ট্রিক্টর প্রভাব মাথাব্যথা থেকে মুক্তি দেয়।

আবার অন্য গবেষকদের মতে, অন্যরা যুক্তি দেয় অতিরিক্ত ক্যাফেইন গ্রহণ মাথাব্যথার কারণ হতে পারে।

এমনকি ডায়রিয়ার ক্ষেত্রেও এমন কোনো স্পষ্ট গবেষণা নেই। যা প্রমাণ করে এই পানীয় কীভাবে হজম স্বাস্থ্যকে উন্নত করতে পারে।

প্রমাণের অভাবে এখনও লেবু কফির কার্যকারিতার বিষয়ে কিছু জানা যায়নি। এ বিষয়ে আরও গবেষণা প্রয়োজন।

কীভাবে তৈরি করবেন লেবু কফি?

লেবু কফি পান করতে চাইলে অবশ্যই ব্ল্যাক কফিতে লেবুর রস যোগ করুন, দুধে নয়। সাইট্রিকের স্বাদের ভারসাম্য বজায় রাখতে এতে সামান্য লবণও যোগ করতে পারেন।

তবে চিনি এড়িয়ে চলুন। এছাড়াও দিনে এক কাপের বেশি লেবু কফি না খাওয়ার চেষ্টা করুন। এর পাশাপাশি ওজন কমাতে সঠিক খাদ্য ও ব্যায়াম রুটিন অনুসরে করুন।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া