মাঝরাতে আপনার পায়ে টান ধরা যেসব রোগের লক্ষণ, দেখুন বিস্তারিত

মাঝরাতে পায়ে টান ধরা যেসব রোগের লক্ষণ

মাঝরাতে হঠাৎ পায়ে টান ধরে অসহ্য যন্ত্রণায় অনেকেরই ঘুম ভেঙে যায়। খুবই অস্বস্তিকর এই যন্ত্রণা কয়েক সেকেন্ড বা মিনিট ধরে চলতে পারে। শোয়ার ভুলে হয়তো এমনটি হয়, এই ভেবে অনেকেই কঠিন এই সমস্যাটি এড়িয়ে যান।

যদিও ঘুমের মধ্যে টান লাগার সমস্যাটি বেশ স্বাভাবিক ঘটনা। আবার বয়সের সঙ্গে সঙ্গেও এর প্রবণতা বাড়ে। তবে গবেষণায় দেখা গেছে, পুরুষের চেয়ে নারীর ক্ষেত্রে এই সমস্যা বেশি দেখা দেয়।

পায়ে টান ধরার কারণ কী?

সাধারণত শরীরে পানির অভাবে পেশিতে টান লাগে। এছাড়াও শরীরে কিছু জরুরি পুষ্টিগুণ ও ভিটামিনের অভাবেও এমনটি হয়ে থাকে।

তবে প্রায়ই যদি পায়ে টান লাগার ঘটনা ঘটে তাহলে তা মারাত্মক রোগের লক্ষণ হতে পারে। যেমন-

> রক্ত জমাট বাঁধা হৃদরোগের আশঙ্কা

> লিভার সিরোসিস

> ডায়াবেটিস

> কিডনির সমস্যা

> পার্কিনসন্‌স ডিজিজ

> ক্যানসার চিকিৎসায় কেমোথেরাপির প্রভাব ইত্যাদি।

পায়ে টান ধরার সমস্যার প্রতিকার

সাধারণত পায়ে টান লাগা নিয়ে খুব বেশি দুশ্চিন্তার প্রয়োজন নেই। এমনিতেই এ ধরনের ব্যথা সেরে যায়। এছাড়াও এটি কমানোর কোনো ওষুধ নেই।

তবে অসহ্য যন্ত্রণা করলে বরফ বা হালকা গরম পানিতে পা ডুবিয়ে রাখলে ব্যথা কমে যাবে। একইসঙ্গে হালকা ম্যাসাজ করলেও পায়ের পেশির যন্ত্রণা কমতে পারে।

> পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি খেতে হবে। দিনে অন্তত ৭-৮ গ্লাস।

> মদ্যপান ও ক্যাফেইন কম গ্রহণ করুন।

> ঘুমানোর সময় সতর্ক হন। পায়ের নীচে বালিশ রেখে পা উঁচুতে তুলে রাখতে পারেন।

> ঘুমাতে যাওয়ার আগে পায়ের পেশি সামান্য স্ট্রেচ করে নিন।

> শরীরচর্চার সময় পায়ের পেশির দিকে মনযোগ দিন।

তবে পেশিতে টান লাগার ঘটনা প্রায়ই হয় ও অতিরিক্ত ব্যথা বা চামড়ার রং বদলে যায়, তাহলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

সূত্র: মেডিকেল নিউজ টুডে

জেএমএস/এএসএম