ফল-সবজি খেতে না চাওয়া বাচ্চাদের ফল-সবজি খাওয়ানোর দারুণ কয়েকটি টিপস

খাদ্য উপাদানের মধ্যে সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ হল ভিটামিন ও মিনারেলস। এই দুয়ের মূল উৎস হল ফল ও শাক সবজি। বাচ্চাদের শরীরিক বিকাশ ও পুষ্টি জোগাতে বাচ্চাকে ফল ও সবজি খাওয়ানো খুবই দরকার। কিন্তু, বাচ্চারা এই দুই খাবারও ভুলেও মুখে তুলতে চায় না।

কেউ কেউ ফল খেলেও, সবজি খেতে কোনও বাচ্চাই পছন্দ করে না। কিন্তু, বাচ্চার পছন্দ নয় বলে তাকে খাওয়াবেন না এমন করা উচিত নয়। এতে বাচ্চারই ক্ষতি। রইল টিপস। জেনে নিন কীভাবে বাচ্চাকে ফল ও সবজি খাওয়াবেন।

ভালো করে রান্না করুন- সবজির স্বাদের জন্য বাচ্চারা তা খেতে চায় না। তাই ভালো করে রান্না করুন। ভালো মানে বেশি তেল-মশলা দিয়ে রান্না নয়। এতে সবজির কোনও গুণই বাচ্চার শরীরে পৌঁছাবে না।

কম তেল দিয়ে সুস্বাদু স্বাদ দিন। এতে সে খুশি হয়ে খাবে। বাচ্চা যদি বার্গার খেতে পছন্দ করে তাহলে, বার্গারের পুরে সবজি ভরে দিন। সে খুশি খুশি হয়ে খাবে।

রোজ খাদ্যতালিকায় রাখুন সবজি- বাচ্চা খেতে পছন্দ করে না বলে, একদিন সবজি খাওয়ালেন এমন করবেন না। রোজ ব্রেকফার্স্ট সবজি আর ফল রাখুন। সুন্দর করে সাজিয়ে খেতে দিন। রোজ খেতে দিলে একদিন নিশ্চয়ই বাচ্চা বুঝবে এগুলো খাওয়া কতটা দরকার।

রান্নার কাজে যোগ করুন- বাচ্চাকে রান্নার কাজে যুক্ত করুন। আগুনের সামনে যেতে দেওয়ার দরকার নেই। সবজি ও ফল পরিষ্কার করতে দিন। আপনি কীভাবে তা কাটেন দেখান। কীভাবে রান্না করেন সেটা বাচ্চাকে দেখান। এভাবে সে নিজেই ফল ও সবজির সঙ্গে পরিচিত হবে। এর থেকে এগুলো খাওয়ার ইচ্ছে বাড়বে।

ধৈর্য্য হারাবেন না- বাচ্চা খাচ্ছে না বলে ধৈর্য্য হারিয়ে ফেলবেন না। রোজ সবজি ও ফল খাওয়ানোর চেষ্টা করুন। দেখবেন সে নিজেই খাবে। ফল ও সবজির পুষ্টিগুণ সম্পর্কে বাচ্চাকে অবগত করুন। জ্ঞান বাড়লে বাচ্চার খাওয়ার প্রতি আগ্রহ বাড়বে।