বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চলেছেন অভিনেত্রী মৌনি রায়, ঠিক হয়েছে রিসেপশন পার্টি’র ভেন্যু-পড়ুন বিস্তারিত

চলতি বছরের শুরু থেকেই বলিউডে একের পর এক বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন একাধিক সেলিব্রেটি জুটি। এবার পালা বঙ্গ তনয়া মৌনী রায়ের (Mouni Roy)। কোচবিহারের মেয়ে তথা বলিউড অভিনেত্রী বিয়ে করছেন খুব তাড়াতাড়ি। ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে বিয়ের সমস্ত তোড়জোড়। হবু শ্বশুর বাড়িতে সকলের সাথেই দারুন বন্ডিং অভিনেত্রীর। তাই দেরী করতে চাইছেন অভিনেত্রী নিজেই।

তবে পাত্র ইন্ডাস্ট্রির কেউ নন। বরং গ্লামার জগতের থেকে তাঁর দূরত্ব অনেক বেশি। অভিনয় জগতে আসার পর ইতিপূর্বে একাধিক অভিনেতার সথে নাম জড়িয়েছে অভিনেত্রীর। টিভি অভিনেতা গৌরব চোপড়ার সঙ্গে সম্পর্কে ছিলেন টেলিভিশন দুনিয়ার ‘নাগিন’। এরপর ‘দেব কে দেব মহাদেব’ খ্যাত সহ অভিনেতা মোহিত রয়নার সঙ্গেও নায়িকার সম্পর্কের গুঞ্জন শোনা যায়।

তবে জল্পনাই থেকে গিয়েছে। কারণ এবার দীর্ঘদিনের বন্ধু শিল্পপতি সুরজ নাম্বিয়ার (Suraj Nambia) গলাতেই মালা দিতে চলেছেন মৌনি। জানা গেছে সুরজ পেশায় দুবাইয়ের ইনভেস্টমেন্ট ব্যাঙ্কার হলেও আদতে বেঙ্গালুরুর বাসিন্দা। শোনা যাচ্ছে ২০২২ সালের জানুয়ারি মাসেই তাঁর সাথেই গাঁটছড়া বাঁধছেন মৌনী। এখন থেকেই শুরু গিয়েছে তার প্রস্তুতি।

শোনা যাচ্ছে ট্রেন্ডে গা ভাসিয়ে ইতালিতে ডেস্টিনেশন ওয়েডিং সারবেন অভিনেত্রী। তবে বিয়ে বিদেশে হলেও কোচবিহারকে বাতিলের খাতায় ফেলেননি। যতই হোক সেখানেই একসময় শৈশব কাটিয়েছিলেন মৌনী। তাই শোনা যাচ্ছে কোচবিহারেও হবে অভিনেত্রীর রিসেপশন পার্টি। এখন থেকেই তার প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছে।কোচবিহারেও হবে অভিনেত্রীর রিসেপশন পার্টি। এখন থেকেই তার প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছে।

অভিনেত্রীর পরিবার সূত্রে খবর তিনি শেষবার কোচবিহার এসেছিলেন আজ থেকে প্রায় ৬ বছর আগে অর্থাৎ ২০১৫ সালে। জানা গেছে মৌনীর বাবা অনিল রায় ছিলেন কোচবিহার জেলা পরিষদের অফিস সুপারিন্টেন্ডেন্ট। কয়েক বছর আগেই তিনি প্রয়াত হয়েছেন। আর মৌনীর মা মুক্তি রায় হলেন দিনহাটার পেটলা হাইস্কুলের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষিকা। তিনি এখনও কোচবিহারেই থাকেন বলে খবর।