যে তিনটে জিনিস ছাড়া একমিনিটও বাঁচতে পারেন না মধুমিতা, নিজেই ফাঁস করলেন সিক্রেট

ছিমছাম সেক্সি চেহারায় প্রতিনিয়তই ফোটোশুটে নজর কাড়ছেন ছোটপর্দার পাখি কিংবা ইমন। হট অবতারে দর্শক ধরে রাখতেও বেশ সিদ্ধহস্ত মধুমিতা। শরীরী উষ্ণতায় বলিউডকেও টেক্কা দিতে প্রস্তুত মধুমিতা।

সম্প্রতি ছবির প্রথমসারির সংবাদমাধ্যমকে ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস করলেন মধুমিতা। এই বিশেষ তিন জিনিস ছাড়া নাকি একমুহূর্ত থাকতে পারেননা মধুমিতা, কী সেই সিক্রেট, জেনে নিন বিশদে।

বোঝে না সে বোঝে না সিরিয়ালের পাশের বাড়ির মেয়ের ইমেজ ঝেড়ে টলিপাড়ার সাহসী অভিনেত্রীর তকমা জুটেছে মধুমিতার।

শুধু ধারাবাহিকেই নয়, বড় পর্দা এবং ওটিটিতেও দাঁপিয়ে বেড়াচ্ছেন মধুমিতা। বেশ কয়েকটি ছবিতে অভিনেত্রীর সাহসী অবতার নজর কেড়েছে নেটিজেনদের।

সম্প্রতি সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী জানিয়েছেন, চারপাশটা অবজার্ভ করতে ভীষণ ভালবাসেন মধুমিতা। বরাবরই ঘুরতে যেতে ভালবাসেন। কাজের চাপে ঘুরতেও যেতে পারছেন না।

মধুমিতা আরও বলেছেন, জীবনের সবচেয়ে প্রিয় তিনটি জিনিস হল নিজের কাজ, ঘুরতে যাওয়া, মিউজিক। এবং সবচাইতে বড় জিনিস হল হেডফোন। যেটা ছাড়া একমুহূর্ত বাঁচতে পারি না।

ছিমছাম সেক্সি চেহারায় প্রতিনিয়তই ফোটোশুটে নজর কাড়ছেন ছোটপর্দার পাখি কিংবা ইমন। হট অবতারে দর্শক ধরে রাখতেও বেশ সিদ্ধহস্ত মধুমিতা।

শরীরী উষ্ণতায় বলিউডকেও টেক্কা দিতে প্রস্তুত মধুমিতা। দেশি গার্লের এহেন অবতারেই ক্লিন বোল্ড নেটিজেনরা। টলিউডে সাহসীকতার সঙ্গেই বেশ দাপিয়ে কাজ করছেন মধুমিতা সরকার।

বক্ষ-বিভাজিকা যেন সর্বদাই বেরিয়ে রয়েছে। টলিপাড়ার দেশি গার্লের এহেন অবতারেই ক্লিন বোল্ড নেটিজেনরা। চাবুক ফিগার, অফ শোল্ডার গাউনের বক্ষের ভাঁজে চোখ আটকে ভক্তদের।

বিবাহবিচ্ছেদ হয়েছে বহুদিন। জীবনের কঠিন অধ্যায় পেরিয়ে এসে মধুমিতা এথন দৃঢ়চেতা এবং সাবলম্বী। কখনও সোলো ট্রিপ ও কখনও গার্লস গ্যাং-এর সঙ্গে চুটিয়ে মস্তি আবার কখনও সাহসী ফোটোশুট থেকে ভিডিও শেয়ার করে ভক্তদের পাগল করে দিচ্ছেন টলি ডিভা মধু।

স্বাধীনতা দিবসের দিন মুক্তি পেয়েছে যশ-মধুমিতা অভিনীত এসভিএফ-এর মিউজিক ভিডিও ‘ও মন রে”। বোঝে না সে বোঝে না’ সিরিয়ালেই প্রথম একসঙ্গে দেখা গিয়েছিল অরণ্য-পাখিকে। সেই জুটির জনপ্রিয়তা আজও রয়েছে দর্শকদের মধ্যে। ফের একসঙ্গে কাজ করছেন মধুমিতা সরকার ও যশ দাশগুপ্ত।

শুধু ধারাবাহিকেই নয়, বড় পর্দা এবং ওটিটিতেও দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন মধুমিতা। সদ্যই মুক্তি পেয়েছে ট্যাংরা ব্লুজ, যেখানে পরমব্রতর বিপরীতে দেখা গেছে মধুমিতা সরকারকে।