সুন্দর আইলুক পেতে ৫টি কার্যকরী চোখের মেকআপ টিপস

পুরো মেকআপ প্রক্রিয়ার মধ্যে চোখের মেকআপ সবচেয়ে চ্যালেঞ্জিং ধাপ। একটা ভুল আইশ্যাডো কালার বা উল্টাপাল্টা মেকআপ ব্রাশ-এর ব্যবহার আপনাকে মোহনীয় রূপের পরিবর্তে কুৎসিত লুক দিতে পারে। তাহলে চলুন জেনে নেই সহজ ও কার্যকরী ৫টি আই মেকআপ কৌশল!

চোখের মেকআপ করতে কিছু টিপস

১. আইশ্যাডো
প্রথমেই আপনাকে চোখের রং বুঝে আইশ্যাডো-এর রং নির্বাচন করতে হবে। চোখের রঙের সাথে কনট্রাস্ট করে এমন আইশ্যাডো ব্যবহার করলে সাধারণত ভালো দেখায়। কালো বা গাঢ় রং চোখের জন্যে ধুসর, নীল, সবুজ এবং বেগুনী রঙের শেড বেশ মানিয়ে যায়। আর হালকা রঙের চোখের সঙ্গে তামাটে, বাদামী বা ব্রোঞ্জ শেড ভালো মানায়। প্রথমে হালকা করে আইশ্যাডো দিতে হবে কারণ একবার গাঢ় করে ফেললে সেটা তোলা খুব দুরহ হয়। তাই আস্তে আস্তে গাঢ় করতে হবে।

২. আইলাইনার
চোখের মেকআপ-এ আইলাইনার দেয়াটাও একটা দক্ষতার কাজ। কারণ আইলাইনার-ই আপনার চোখকে দেবে আসাধারণ একটা লুক। আপনার চোখের আকৃতিভেদে লাইনার প্রয়োগ ভিন্ন হতে পারে। যেমন গোলাকৃতি কিংবা ছোট চোখের জন্যে শুধুমাত্র বাইরের কোনায় অথবা শুধু উপরের পাতায় দিলেই চলে। পেন্সিলটি প্রথমে হাতের আঙ্গুলে ঘষে একটু নরম করে নিন। যাতে চোখে ব্যথা না লাগে। আই পেন্সিল দিয়ে আঁকা লাইনের উপরে একটু পাউডার দিলে লাইনটি আর ছড়িয়ে যাবে না এবং দীর্ঘস্থায়ী হবে।

৩. মাশকারা
মাশকারা ব্যবহার করার পুর্বে সম্ভব হলে আইল্যাশ কার্লার দিয়ে চোখের পাপড়িগুলো একটু ঘন করে ও কোকড়া নিতে পারেন। মাশাকারা আপনার চোখকে একটা ডেফিনেশন দেবে।

৪. আইব্রো
আপনার চুলের রং থেকে এক শেড হালকা আইব্রো পেন্সিল দিয়ে ভ্রুটা ভালো করে এঁকে নিন। মনে রাখবেন, চুলের রং এর চেয়ে গাঢ় শেডের আইব্রো ব্যবহার করলে খুবই বেমানান লাগে।

৫. কনসিলার
চোখের নিচে কোন কালো দাগ বা ডার্ক সার্কেল থাকলে কনসিলার (consealar) দিয়ে ঢেকে দিতে হবে। কনসিলার-এর রং যেন ত্বকের রং-এর সাথে ভালো করে ব্লেন্ড হয়ে যায়।

তাহলে এবার থেকে নিজেই এঁকে নিন নিজ চোখের মায়া! উপরের ৫ টি ধাপ অনুসরণ করলেই পাবেন মোহনীয় দুটি চোখ। এখন আর চোখ সাজাতে পার্লার-এর খোঁজ নিতে হবে না! নিজেই নিজের চোখ রাঙান মনের মতো!