সন্তানের জন্মের পর মায়েদের কী খাওয়া উচিত আর কী উচিত না জেনে রাখুন

সন্তানের জন্মের আগে যেমন মায়ের স্বাস্থ্যের দিকে নজর রাখা ভীষণ জরুরি, ঠিক তেমনি সন্তানের জন্মের পরও নতুন মায়েদের স্বাস্থ্যের দিকে আরো বেশি লক্ষ্য রাখা প্রয়োজন। চিকিৎসাবিজ্ঞানের সাথে সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, মা হওয়ার প্রথম ধাপ থেকে মা হওয়ার পর যতদিন বাচ্চারা ব্রেস্টফিড করছে, ততদিন পর্যন্ত মায়েদের স্বাস্থ্যের বিষয়টি বিশেষভাবে ভাবা দরকার। কারণ, উভয় ক্ষেত্রেই মায়েদের শরীরের পুষ্টি থেকেই শিশুর পুষ্টি হয়। তাই সন্তানের জন্মের পর মায়েদের এমন সমস্ত খাবার খাওয়া দরকার, যার মাধ্যমে শিশুরাও সম্পূর্ণ পুষ্টি পেতে পারে। এমনটাই পরামর্শ দিচ্ছেন পুষ্টিবিদরা।

সন্তানের জন্মের পর মায়েরা কী খাবেন-কী খাবেন না

সন্তানের জন্মের পর নতুন মায়েদের প্রতিদিন নির্দিষ্ট নিয়ম মেনে খাবার খাওয়া দরকার। যদি কোনো মা যথাযথ নিয়মে খাবার না খান, তাহলে তার শরীরে ক্যালরি এবং অন্যান্য উপকারী উপাদানের মাত্রা কমে যায়।

নতুন মায়েদের খাবারের তালিকায় প্রতিদিন যেনো এক তৃতীয়াংশ সবুজ শাক-সবজি এক তৃতীয়াংশ প্রোটিন জাতীয় খাবার এবং এক তৃতীয়াংশ কার্বোহাইড্রেড জাতীয় খাবার থাকে।

প্রতিদিন তাদের অবশ্যই টাটকা সবজি এবং ফল খাওয়া প্রয়োজন। এর ফলে ব্রেস্ট মিল্কের পরিমাণ বাড়ে। এছাড়া, ব্রাউন রাইস, পাস্তার পাশাপাশি প্রোটিন হিসেবে ডিম, মাছ, মাংস, ডাল, বিনস এগুলোও খাবারের তালিকায় রাখা দরকার।

স্বাস্থ্যকর ফ্যাটজাতীয় খাবার হিসেবে ঘি, অলিভ অয়েল, বাদাম, অ্যাভোক্যাডো এবং মাছের তেল বা তৈলাক্ত মাছ মায়ের পাশাপাশি শিশুরও স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটায়।

শিশুর দ্রুত উন্নতির জন্য এবং তার শরীরে যাতে ক্যালশিয়ামের ঘাটতি না হয়, তার জন্য দুধ এবং দুগ্ধজাত খাবার খাওয়া খুবই প্রয়োজন। নতুন মায়েরা প্রতিদিন অন্তত ৬ থেকে ৮ গ্লাস পানি পান করতে ভুলবেন না।

এসব খাবার ও পানীয়ের পাশপাশি কফি কিংবা কোমল পানীয় এড়িয়ে চলার পরামর্শ দিয়েছেন পুষ্টিবিদরা। এতে অনিদ্রা এবং হজমের বিভিন্ন সমস্যা দেখা দিতে পারে বলে মতামত তাদের।