এই দুই উপায়ে পেঁয়াজ খেলে পেটের ফ্যাট গলাতে সুবিধা হয়

অতিমারিতে অনেকেই যেমন স্বাস্থ্য সচেতন হয়েছেন, তেমনই অনেকের শারীরিক পরিশ্রম কমে গিয়েছে। বাড়ি থেকেই কাজ করার সুবাদে হাঁটাহাঁটি কমে গিয়েছে। ফলে ভুঁড়ি বেড়েছে অনেকেরই। শরীরের বাকি জায়গা থেকে চর্বি কমানো যত না কঠিন, ভুঁড়ি কমানো তার চেয়ে অনেক বেশি কঠিন। যদি সত্যিই তা চান, তা হলে অনেক খাবার ছাড়তে হবে, আবার অনেক স্বাস্থ্যকর খাবার রোজকার খাদ্যতালিকায় জুড়তেই হবে। তারই মধ্যে অন্যতম পেঁয়াজ।

পেঁয়াজ আমাদের অনেক বাঙালি রান্নায় পড়ে। রোজই প্রায় খাই আমরা। অথচ পেঁয়াজের সব উপকারিতা সম্পর্কে আমরা অনেকেই সে ভাবে সচেতন নই। ভুঁড়ি কমাতে পেঁয়াজের ভূমিকা যেমন অনেকের কাছেই অজানা। শরীরচর্চা করার পাশাপাশি দেখতে হবে আপনার শরীরের বিপাক হার ঠিক মতো বাড়ছে কিনা। তবেই ভুঁড়িকমতে সুবিধা হবে। পেটের চর্বি গলানোর জন্য দারুণ কাজ দেয় পেঁয়াজ। তবে তরকারি বা ঝোলে পেঁয়াজ ফোঁড়ন দেওয়া বা ভাজা পেঁয়াজে তেমন উপকার পাবেন না। কী ভাবে পেঁয়াজ খেলে ফ্যাট গলাতে সুবিধা হয়? জেনে নিন দু’টি উপায়।

পেঁয়াজের রস

এক কাপ জল একটি পাত্রে ফুটিয়ে নিন। ৩-৪ মিনিট পর আঁচ থেকে নামিয়ে মিক্সারে দিয়ে দিন। তাতে একটি পেঁয়াজ ছোট ছোট করে কেটে ফেলে দিন। দু’টো মিলে ভাল করে ঘুরিয়ে একটি মিশ্রণ বানিয়ে নিন। তারপর আর ২ কাপ জল এই মিশ্রণের সঙ্গে মিশিয়ে একটি বোতলে ভরে রাখুন। এই পেঁয়াজের রস সকালে উঠে, শরীরচর্চা করার আগে খেতে হবে প্রত্যেক দিন।

পেঁয়াজের স্যুপ

উপকরণ

পেঁয়াজ ৬টি, টমেটো ৩টে কুচনো, বাঁধাকপি ১ কাপ কুচো করা, ভেজিটেবিল বা চিকেন স্টক ৪ কাপ, রসুনকুচি ২ কোয়া, গোলমরিচগুঁড়ো ১ চা চামচ
অলিভ অয়েল ২ চা চামচ, নুন স্বাদমতো

প্রণালী

পেঁয়াজের খোসা ছাড়িয়ে কুচিয়ে নিন।

একটি পাত্রে অলিভ অয়েল গরম করুন। রসুন দিয়ে হাল্কা করে সঁতে করে নিন।

এরপর পেঁয়াজ আর বাকি সব্জি দিয়ে দিন। ভাল করে নেড়ে ৩০ সেকেন্ড রান্না হতে দিন।

এরপর স্টক ঢেলে নুন-গোলমরিচ ছড়িয়ে দিন।

১৫ মিনিট রান্না হতে দিন। হয়ে গেলে গরম গরম খেয়ে নিন।