নিখিল জৈন-নুসরত জাহান বিবাহ বিচ্ছেদের মামলায় আইনজীবী বদলালেন নুসরত, কারণ জানলে আপনি অবাক হবেন

নিখিল জৈন-নুসরত জাহান বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা পিছোল। বুধবার, ১৮ মার্চ, আলিপুর কোর্টে শুনানি ছিল। কিন্তু নুসরত জাহান আইনজীবী বদল করায় মামলার শুনানি পিছিয়ে গেল।

নুসরতের হয়ে এতদিন মামলা লড়ছিলেন আইনজীবী সৌমেন রায়চৌধুরী। তাঁকে সরিয়ে নতুন আইনজীবী হিসাবে এলেন চিন্ময় গুহঠাকুরতা। কেন এই পরিবর্তন? সূত্রের খবর, নুসরত এই মামলায় নাকি ওয়াকওভার দিতে চাইছেন তাঁর ‘সহবাস সঙ্গী’ নিখিল জৈনকে।

তাতে তাঁর আগের আইনজীবী রাজি না হওয়াতেই এই পরিবর্তন। তবে, সৌমেন রায়চৌধুরীর সঙ্গে যোগাযোগ করলে জানা যায়, এটি একটি প্রফেশনাল সিদ্ধান্ত, তার বেশি কিছু নয়। অন্যদিকে, নতুন আইনজীবী আসায়, গোটা কেসটা হাতে নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ খুঁটিনাটি দেখতে খানিকটা সময় লাগবে জানিয়েছেন তিনি। তাই কোর্টের কাছে আবেদন করায় মামলার পরবর্তী শুনানি পিছিয়ে ৩ সেপ্টেম্বর ধার্য করা হয়েছে।

বুধবার আলিপুর কোর্টে নিখিল জৈন বা নুসরত জাহান কেউই হাজির হন নি। দুপক্ষের আইনজীবীরাই কেবলমাত্র হাজির হন। নুসরত বর্তমানে সন্তানসম্ভবা। সেপ্টেম্বরের গোড়ায় তাঁর সন্তান হওয়ার কথা, কিন্তু তারিখ কিছুদিন এগিয়েও আসতে পারে বলে খবর।

জীবনের সেরা সময় উপভোগ করছেন, সোশ্যাল মিডিয়ায় বিভিন্ন পোস্টে সেই বার্তাই দিচ্ছেন অভিনেতা-সাংসদ। এদিকে নিখিল জৈনও তাঁর কাজে ব্যস্ত। এখন রয়েছেন শান্তিনিকেতনে। তাঁর ‘রঙ্গোলি’ শাড়ি নিয়ে নতুন একটা জবরদস্ত ক্য়াম্পেন করছেন বলে জি ২৪ ঘণ্টা ডিজিটালকে জানালেন তিনি। এর মধ্যেই তাঁর আরও একটি ব্র্য়ান্ড ‘ইউভ’-এর ব্র্য়ান্ড অ্য়াম্বাসাডার হিসাবে যুক্ত হলেন যশের ‘ফিদা’ নায়িকা সঞ্জনা।

২০২১-২০২২ সালের জন্য অভিনেতার সঙ্গে চুক্তি করেছেন নিখিল। মামলা নিয়ে জানতে চাওয়া হলে নিখিল বলেন, ‘দুতরফেই কেসটা আইনজীবীরাই দেখছেন। তবে তিনি মামলার নিষ্পত্তি আইনের দায়রায় থেকেই করতে চান। আউট অফ কোর্ট সেটেলমেন্টের কোনও প্রশ্নই নেই’, বলে জানিয়েছেন নিখিল।

মামলার পরবর্তী শুনানি হওয়ার কথা ৩ সেপ্টেম্বর। নুসরতের সন্তান হওয়ার সময়টাও তার খুবই কাছকাছি।